“নতুন রেল রুটে কাজ দ্রুত শুরু হবে”, বক্তব্য বাংলাদেশ রেলমন্ত্রীর

0

ঢাকা : আখাউড়া থেকে সিলেট রুটে রেলের কাজ দ্রুত শুরু হবে, রবিবার এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম। সিলেটের কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার ভোলাগঞ্জ রোপওয়ে, বাঙ্কার ও ধলাই নদী পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান রেলমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেছেন, “রোপওয়ে করা যাবে কিনা এ বিষয়ে মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। বিলীন হওয়ার হাত থেকে ভোলাগঞ্জে রেলওয়ের জমি কীভাবে রক্ষা করা যায়, এ বিষয়েও পদক্ষেপ নেওয়া হবে।” সূত্রের খবর, বাংলাদেশ রেলওয়ের অনেক পুরোনো রোপওয়ের অবস্থা দেখতে সরেজমিনে দেখতে রবিবার সকালে ভোলাগঞ্জ পাথর কোয়ারি এলাকার ধলাই নদীও ভ্রমণ করেন রেলমন্ত্রী। এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক। এখান থেকে তিনি রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে সড়ক পথে সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলা সদরে অবস্থিত বাংলাদেশ রেলওয়ের একমাত্র স্লিপার কারখানা পরিদর্শনে যান।

উল্লেখ্য, সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ভোলাগঞ্জে দেশের সর্ববৃহৎ পাথর কোয়ারি অবস্থিত। মেঘালয় রাজ্যের খাসিয়া জৈন্তিয়া পাহাড় থেকে বর্ষাকালে ঢল নামে। ধলাই নদীতে ঢলের সঙ্গে নেমে আসে পাথর। ১৯৬৪-১৯৬৯ সালে প্রায় দুই কোটি টাকার বেশি খরচে নির্মিত ভোলাগঞ্জ রোপওয়ে প্রকল্প, যার দৈর্ঘ্য ১১ মাইল ও টাওয়ার এক্সক্যাভেশন প্ল্যান্টের সংখ্যা ১২০টি। উত্তোলিত পাথর ছাতক সিমেন্ট ফ্যাক্টরিতে পাঠানো হত। এখান থেকে নৌকায় ২০ মিনিটের দূরত্বে রয়েছে বিশেষ কোয়ারিরটি।