“যখনই দরকার তিনি আওয়াজ তুললেন”, জয়া বচ্চনকে শ্রদ্ধা জানালেন ফারহান আখতার

0

নয়াদিল্লি : রিয়া চক্রবর্তী সুশান্ত সিং রাজপুত মামলায় ড্রাগসের বিষয়ে গ্রেফতার হওয়ার পরে বলিউডে ড্রাগসের ব্যবহার নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। সোমবার বাদল অধিবেশনের প্রথম দিন শুরু করেছিলেন জনপ্রিয় ভোজপুরি অভিনেতা ও বিজেপি সাংসদ রবি কিষণ। তিনি জানান যে বলিউডে এই ধরণের ড্রাগের অন্তর্ভুক্তি শুধুমাত্র পাকিস্তান ও চিনের ষড়যন্ত্র এবং আজকের দিনের এই কলঙ্কিত বলিউড স্টারদের শাস্তি দিয়ে ভারত সরকার এর ব্যবস্থা নিক। এর জবাবে একেবারে কড়া ভাষায় জবাব দেন বলিউডের কিংবদন্তী অভিনেত্রী ও সমাজবাদী পার্টির সাংসদ জয়া বচ্চন। জয়া বচ্চনের এই জবাব নিয়ে এখন অভিনেতা ফারহান আখতার তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

জয়া বচ্চনের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ফারহান আখতার ট্যুইটারে লিখেছেন, “শ্রদ্ধা, যখনই দরকার তিনি তার আওয়াজ তুললেন।” ট্যুইটার ব্যবহারকারীরা ফারহান আখতারের এই ট্যুইটটিতে অনেক মন্তব্য করছে এবং তাদের মতামত দিচ্ছে। মঙ্গলবার রাজ্যসভায় দাঁড়িয়ে তিনি রবি কিষণ ও সাম্প্রতিককালে কঙ্গনা রানাউতের আক্রমণের জবাবে মন্তব্য করেন, “কিছু মানুষের জন্য, আপনি গোটা ইন্ডাস্ট্রিকে কালিমালিপ্ত করতে পারেন না। গতকাল আমি খুবই লজ্জিত ও অপমানিত হয়েছিলাম যখন লোকসভায় আমাদের ইন্ডাস্ট্রির লোক এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বিরুদ্ধে কথা বলেছে। যে থালায় খায় সেই থালায় তারা ফুটো করে।”

এরপর নাম না করে কঙ্গনার উদ্দেশ্যে জয়া দেবী বলেন, “আমাদের এই ইন্ডাস্ট্রি দেশজুড়ে প্রায় পাঁচ লক্ষ মানুষকে প্রত্যক্ষভাবে এবং পঞ্চাশ লক্ষ মানুষকে পরোক্ষভাবে অন্ন যুগিয়ে চলেছে। এই সময়ে যখন দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ এবং বেকারত্ব একেবারে চরমে, তখন মানুষের মন ঘোরাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় বলিউডের ড্রাগ পাচার নিয়ে কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু যেসব মানুষ এই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি থেকে নিজেদের নাম বানিয়ে এটিকেই কালিমালিপ্ত করছে, সেটায় আমার আপত্তি।”

সঙ্গে সঙ্গে এর জবাব দেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। টুইটারে জয়া বচ্চনকে সরাসরি তিনি বলেন, “জয়া দেবী, আপনি কি এই একই কথা বলতেন যদি আপনার মেয়ে স্বেতাকে মেরে, ড্রাগ খাইয়ে তার যৌবনে অত্যাচার করা হত? আপনি কি একই কথা বলতেন যদি অভিষেক কখনও নিগ্রহের শিকার হওয়ার অভিযোগ করত এবং একদিন ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে পাওয়া যেত? আমাদের জন্যও একটু সহানুভূতিশীল হন।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here