কখন ‘হাস্যকর আত্মপ্রচার’ তো কখন ‘টুইটারকে ধমক’ শেষমেষ নীলপাখি ছেড়ে কুঅ্যাপে মজলেন কঙ্গনা

0

মুম্বই: টুইটারের সতর্কবাণীর জন্য টুইটারকে টুইট করে ধমক দিলেন বলিউড কুইন কঙ্গনা রানাউত। এই প্রথম নয় এর আগেও তিনি এমনটা করেছেন। যখন টুইটার কঙ্গনার দুটি টুইট নিয়ম লঙ্ঘনের কারণে সরিয়ে দেয়।
অভিনেত্রীর দাবি, ‘আমার টুইটার অ্যাকাউন্টে নজরদারি চালানোর অধিকার তাদের কে দিয়েছে!’

উল্লেখ্য কয়েকদিন আগেই কৃষক আন্দোলন নিয়ে ঘরের সেলিব্রেটি ও বাইরের সেলিব্রেটির মধ্যে টুইট যুদ্ধ লাগে। তখন বিধিভঙ্গের অভিযোগে দু’টি টুইট সরিয়ে ফেলে টুইটার কর্তৃপক্ষ। টুইটার জানিয়েছিল, কঙ্গনা তাঁর টুইটে ওই সংস্থার বিধিভঙ্গ করেছেন। কী টুইট করেছিলেন কঙ্গনা, তা জানা যায়ানি। কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্টে টুইটারের কেবল দু’টি নোটিস নজরে এসেছিল। আর তাতেই বেজায় চটেছেন তিনি। টুইটারকে টুইট করে ধমক দিয়েছেন।

বুধবার ফের একটি নোটিস পোস্ট করে টুইটার। লেখা, ‘কয়েকটি টুইটার অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করার কথা উঠেছিল। বিশেষ করে যেগুলিতে সাংবাদিক, সমাজকর্মী এবং রাজনীতিকদের নিয়ে মন্তব্য করা হয়েছে। কিন্ত সেটা করা হয়নি। তাও আমরা স্থির করে‌ছি ভারতীয় আইনের আওতায় এ বার থেকে অ্যাকাউন্টগুলিতে নজরদারি চালাব।’ সেটিকে শেয়ার করে কঙ্গনা দু’টি পোস্ট করেছেন। তাঁর বক্তব্য, ‘কে তোমাদের দেশের বিচারপতি বানিয়েছে? তোমরা ঠিক এক জোট হয়ে মানুষকে অপমান করবে। যেন সংসদের অনির্বাচিত সদস্য। তোমরা এমনকী দেশের প্রধানমন্ত্রী সাজারও চেষ্টা করো। কে তোমরা শুনি? এক দল নেশারু তোমরা! আমাদের নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করো?’

ফের একটি টুইট করে হুমকি দিয়ে জানিয়েছেন, ‘তোমাদের দিন শেষ টুইটার। এ বার থেকে কুঅ্যাপ ব্যবহার করবে সবাই। আমি আমার অ্যাকাউন্টের সমস্ত তথ্য সকলকে দিয়ে দেব। দেশের জিনিস ব্যবহার করতে খুব উত্তেজিত তিনি।’ শুধু তাই নয়। মঙ্গলবার থেকে অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের দু’টি পোস্ট নিয়ে বিশ্বজুড়ে চর্চা শুরু। আত্মপ্রচারে মগ্ন কঙ্গনা। একটিতে বিশ্বখ্যাত বর্ষীয়ান অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপেমর সঙ্গে নিজের তুলনা করেছেন। আর একটিতে টম ক্রুজের সঙ্গে। লিখেছেন, ‘কেবল মেরিল স্ট্রিপ নয়, টম ক্রুজের চাইতেও দক্ষ আমি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here