অবশেষে দৌড় শুরু করল ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো

0

কলকাতা: দীর্ঘ টালবাহানার পর অবশেষে চালু হল ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো। বৃহস্পতিবার ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর প্রথম পর্যায়ের উদ্বোধন করতে শহরে আসেন রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি বললেন, “সারা ভারতের বিকাশ তখনই হবে, যখন পূর্ব ভারতের বিকাশ হবে। কলকাতা নতুন করে সারা ভারতকে পথ দেখাবে।”

এই মুহুর্তে এই মেট্রো পরিষেবা চলবে সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে সল্টলেক স্টেডিয়াম পর্যন্ত। উঠলেই ৫টাকা ভাড়া। ২০ মিনিট অন্তরই মিলবে পরিষেবা।

কিন্তু এই উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত নন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ই-রেলের তরফ থেকে নবান্নে আসেনি কোনো রকম আমন্ত্রণপত্র। শুধু তাই নয়, উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চে যে আসন বিন্যাসের যে নকশা রয়েছে সেখানেও আসন নেই মুখ্যমন্ত্রীর। কলকাতার বিশেষ এই ধরনের অনুষ্ঠানে সাধারণত আমন্ত্রণ জানানো হয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে। এবার কেন তার ব্যতিক্রম সেই বিষয়েই চাঞ্চল্য ছড়াচ্ছে রাজনৈতিক মহলে।

এমনকি এদিনের অনুষ্ঠানে মমতাকে বাদ দিয়ে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল তৃণমূলের নানা নেতানেত্রীদের। তবে তৃণমূল নেতৃত্ব সাফ জানিয়ে দেয় তাঁদের দলের কেউই সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন না। ডাকলে যান না, তাই ইষ্ট ওয়েষ্ট মেট্রোর উদ্বোধনে মুখ্যমন্ত্রীকে ডাকা হয়নি। বৃহস্পতিবার এই কথা জানান বিজেপি বিধায়ক মনোজ টিক্কা। তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনেক অনুষ্ঠানে কেন্দ্র আমন্ত্রণ জানিয়েছে। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রীয় সরকারের আমন্ত্রণ রক্ষা করেননি। যেহেতু বারবার কেন্দ্রীয় সরকারের আমন্ত্রণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাখেননি তাই হয়তো এবার তাকে আমন্ত্রণ জানায়নি।প্রসঙ্গত, এদিন ইষ্ট-ওয়েষ্ট মেট্রো প্রকল্পের উদ্বোধনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানায়নি রেল মন্ত্রক। রেল মন্ত্রকের এই ভূমিকা নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে তীব্র আক্রমণ শুরু করেছে তৃণমূল। রাজ্যের মন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, “কেন্দ্রীয় সরকার শিষ্টাচার জানেন না। তারা রাজনৈতিক সৌজন্যতা রাখতে জানেন না। তাই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে ছাড়াই কলকাতায় ইষ্ট-ওয়েষ্ট প্রকল্পের উদ্বোধন করছেন রেলমন্ত্রী পীয়ূষ গোয়েল।” তবে কেন্দ্রীয় সরকারের এই অহংকার বেশি দিন থাকবে না বলেও জানান গৌতম দেব।

বিজেপি নেতাদের কটাক্ষ করে গৌতম দেব বলেন, “অহংকার পতনের মূল।” বিজেপির খুব শীঘ্রই পতন হবে বলেও জানান গৌতম দেব। রাজ্যের মন্ত্রী গৌতম দেবকে পাল্টা আবার কটাক্ষ করেন বিজেপি বিধায়ক মনোজ টিক্কা। তিনি বলেন, “সরকারি অনুষ্ঠানে এ রাজ্যে বিরোধীদের ডাকা হয় না। তাহলে এখন কেন এ বিষয়ে তৃণমূল মন্তব্য করছেন।” অসৌজন্যতার কথা তৃণমূলের মন্ত্রীদের মুখে মানায় না বলে জানান বিজেপি বিধায়ক মনোজ টিক্কা।