দিলীপের প্রতি বিরক্ত! মুকুলকে সামাল দিতে কেন্দ্রীয় পদ দেওয়ার ভাবনা শীর্ষ বিজেপি নেতৃত্বের

0

অরিত্রা দাশগুপ্ত, নয়াদিল্লি: রাজ্য বিজেপির গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বারবার প্রকাশ্যে এসেছে। এর মাঝেই এবার দলে পদ পাওয়া নিয়ে আগ্রহী হয়ে উঠলেন মুকুল রায়। ওজনদার পদ না পেলে আগামী বিধানসভা ভোটে কিছু করে দেখানো যে খুব কঠিন তা বিলক্ষণ জানেন মুকুল রায়। সেই কারণেই নিদেনপক্ষে বিজেপির কেন্দ্রীয় সভার সদস্য না হলেও বিজেপির কেন্দ্রীয় কমিটির কোন একটি পদে আসীন হতে চাইছেন মুকুল রায়। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর প্রায় তিন বছর কেটে গেলেও মুকুল দলের জাতীয় কর্মসমিতির সাধারণ সদস্য মাত্র।

গত লোকসভা ভোটে রাজ্য থেকে ১৮ টি আসনে বিজেপি জয়ী হয়। তারপর মুকুল অনুগামীরা আশা করেছিলেন মুকুল রায়কে কেন্দ্রীয় বিজেপির তরফ থেকে কোনো বিশেষ পদ দেওয়া হবে। তবে শেষ পর্যন্ত মুকুল কিছুই পাননি। হাল ছাড়েননি মুকুল পন্থীরা। তাদের পরবর্তী টার্গেট রাজ্যসভার সাংসদ অমর সিংহের একটি শূন্যপদ। নভেম্বরে এমনিতেই উত্তরপ্রদেশের দশটি আসনে রাজ্যসভা নির্বাচন। যোগী রাজ্যের দলগত শক্তির বিচারে বিজেপির আসন প্রায় নিশ্চিত। বিজেপির বৈঠকের খবর রাজ্যসভার আসন নিয়ে ভাবনা চিন্তা করছেন দলের শীর্ষ নেতৃত্ব।

সেখানে কিছু কেন্দ্রীয় নেতা মুকুলকে প্রার্থী করার ব্যাপারে তদ্বির করেছেন। বিজেপির সূত্রের খবর কিছু কেন্দ্রীয় নেতা প্রাণপনে চেষ্টা চালাচ্ছেন মুকুলকে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মনোনীত করার ক্ষেত্রে। এমনিতেই মুকুল পশ্চিমবঙ্গের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় স্নেহধন্য। সেপ্টেম্বরের মধ্যেই দলের নতুন কেন্দ্রীয় পদাধিকারীদের তালিকা ঘোষণা করতে পারেন বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা। সেখানে মুকুলের নাম সহ-সভাপতি হিসেবে থাকলে বঙ্গ বিজেপিতে দিলীপ ঘোষের একাধিপত্য কিছুটা হলেও ধাক্কা খাবে বলে মত বিরোধী নেতাদের। হাতের তালুর মতো পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা এলাকা গুলিকে চেনেন মুকুল। এই পরিস্থিতিতে আগামী ২০২১ নির্বাচনে মুকুলকে দায়িত্বপূর্ণ পদে নিয়ে এসে বিধানসভা নির্বাচনের জয় লাভের ক্ষেত্রে খানিকটা এগিয়ে থাকতে চাইছে কেন্দ্রীয় বিজেপি।