“কোভিড যেন দুর্গাপুজোর উৎসাহকে দমিয়ে দিতে না পারে”, মহালয়াতে ইতিবাচক বার্তা মমতার

0

কলকাতা: করোনার জেরে পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক হয়নি, এরই মধ্যে চলে এল মহালয়া। বাংলার শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপূজোর বাকি এখনও এক মাস। এই করোনার জেরে ভালো মতো পূজো আয়োজন করাও চাপ। আদৌ এক মাস পর পরিস্থিতি কেমন থাকবে তা আমরা কেউ জানি না, পূজো হলেও জমায়েত করা চলবে না। কিন্তু মহালয়ার পূর্ণতিথিতে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিবাচক বার্তা দিচ্ছেন।

মহালয়ার সকালে টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী লেখেনন, “করোনার জন্য সতর্কতার সঙ্গে উৎসব পালন করতে হচ্ছে। তবে দেখতে হবে, কোভিড যেন দুর্গাপুজোর উৎসাহকে দমিয়ে দিতে না পারে। মহালয়ার প্রতিশ্রুতি, কেউ দুর্গাপুজোর উৎসব থেকে বঞ্চিত হবেন না।” এছাড়াও মমতা বিশ্বকর্মা পুজোরও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও এদিন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ও সকলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেছেন, “পবিত্র দিনে চলুন সকলে মিলে প্রার্থনা করি যাতে বিশ্ব থেকে মহামারী দূর হয়। শত্রুর শক্তি বিনষ্ট হোক। নতুন আশার আলোতে আরও ঊজ্জ্বল হয়ে উঠুক বাংলা।”

আগামী ২৩ অক্টোবর থেকে শুরু হতে চলেছে বাঙালির বহু প্রতীক্ষিত শারদ উৎসব। তবে বর্তমান পরিস্থিতি যেন সেই আনন্দে বাঁধ সেজেছে। করোনা পরিস্থিতিতে সব অনুষ্ঠানই কাটছাঁট হয়েছে। আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর পুজো কমিটিগুলির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে সমস্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছিলেন, “পুজো কমিটিগুলিকে অনুরোধ করব, খোলামেলা প্যান্ডেল করার। কারণ, অনেকেই অঞ্জলি দিতে আসেন। তাতে ভিড় বাড়বে। প্যান্ডেলের একাংশ খোলা থাকলে হাওয়া, বাতাস বইবে। জীবাণু থাকলে তা বেরিয়ে যাবে।”