করোনায় আক্রান্ত রাজ্যের পরিবহণ ও সেচমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী

0

কলকাতা: যত দিন যাচ্ছে করোনার থাবা তত বেশী গাঢ় হচ্ছে। করোনা তার শিকার থেকে সাধারণ মানুষ থেকে নেতা-মন্ত্রী কাউকেই বাদ দিচ্ছে না। এবার রাজ্যের পরিবহণ ও সেচমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর শরীরেও মিলল করোনার উপস্থিতি। রাজ্যের পরিবহণ ও সেচমন্ত্রীর শরীরে মিলেছে করোনার মৃদু উপসর্গ। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু অধিকারীর অ্যান্টিজেন টেস্ট করার পর প্রথম পজিটিভ রেজাল্ট পাওয়া যায় বৃহস্পতিবার দুপুরে। এর পরেই করানো হয় সোয়াব টেস্ট। সেই রিপোর্টের রেজাল্ট পজিটিভ এসেছে। তবে তেমন উপসর্গ নেই। তাই তিনি চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে বাড়িতেই রয়েছেন। পরিবহণ ও সেচমন্ত্রীর পরিবার সূত্রে খবর তাঁর মা গায়ত্রী অধিকারীও করোনা পজিটিভ। কয়েকদিন আগেই শুভেন্দুবাবুর ভাইপো করোনায় আক্রান্ত হন তার পরে আক্রান্ত হন শুভেন্দুবাবুর বড় ভাই। তবে করোনা পরিস্থিতির পর থেকেই শুভেন্দু অধিকারী সচেতন ছিলেন। সামনে নির্বাচন আর সেই কারণেই তিনি এখন ব্যস্ত। তবে সামাজিক দূরত্ব মেনে করোনা নির্দেশিকা মেনেই সভা করছিলেন। কিন্তু পরিবারে করোনা থাবা বসানোয় করোনার হাত থেকে তিনিও বাঁচতে পারলেন না।

বলা বাহুল্য যে রাজ্যের পরিবহণ ও সেচমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রীসভার অন্যতম দাপুটে নেতা। যিনি একাহাতে সামলান মেদিনীপুর। করোনা রাজ্যে আসার পর ও আমফানে ক্ষতি হওয়ার পরেই তিনি উদ্ধার কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন। একদিকে যেমন জেলা সামলেছেন তেমনি কলকাতার দফতরের সমস্ত কাজও যথাযথ ভাবে সামলাচ্ছিলেন। তবে করোনায় আকারন্ত হওয়ার পর ঠিক এখন নিজের বাড়িতেই থাকবেন ও চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনেই চলবেন। আজ তাঁর চেক-আপ করানোর কথাও রয়েছে।