ইংরেজি না বলার অপরাধে আয়কর দফতর থেকে ছাঁটাই পাঁচ কর্মী, প্রতিবাদ বাংলা পক্ষের

0

কলকাতা: ইংরেজি না বলার অপরাধে আয়কর দফতর থেকে কর্মী ছাঁটাইয়ের অভিযোগ উঠল। উত্তর প্রদেশ, বিহারে কেন্দ্র সরকারের অফিসে সমস্ত কর্মীদের ইংরেজি বলতে না পারার জন্য বরখাস্ত হতে হয়? সবাই সেখানে হিন্দি বলে। বাংলায় অফিসে বাংলা বললে পাপ? এরকম ঘটনাই ঘটেছে কলকাতায়। ইংরেজি বলতে না পারার অভিযোগে আয়কর বিভাগ থেকে পাঁচজন অস্থায়ী বাঙালি কর্মীকে বরখাস্ত করার প্রতিবাদে সোচ্চার বাংলাপক্ষ।

শুক্রবার সকাল ১০ টার সময় কলকাতার মিডিলটন রো এর আয়কর দফতরে স্মারকলিপি জমা দিয়েছে বাংলা পক্ষ। নিয়ম অনুযায়ী পরীক্ষা নিয়ে ঠিকাদারের মাধ্যমে পাঁচজন বাঙালি কর্মীকে অস্থায়ী ভাবে কাজে রাখে আয়কর দফতর। কিন্তু হঠাৎ করেই ইংরেজি বলতে পারে না এই অভিযোগে তাদের বরখাস্ত করা হয়। জানা গিয়েছে আয়কর দফতরের এক কর্তা ঠিকাদার সংস্থাকে জানিয়েছে ইংরেজি মাধ্যম বিদ্যালয়ের কর্মী তাদের প্রয়োজন।

বাংলার অফিসে বাংলার মানুষকে পরিষেবা দেওয়া হয়, এই রাজ্যে ৮৬% মানুষ বাঙালি। তাই বাংলার সব কেন্দ্র সরকারি অফিসে বাংলা বাধ্যতামূলক হওয়া উচিত। কারণ ৮৩% বাঙালি হিন্দি, ইংরেজি জানে না। বাংলা না জানলে বরং বরখাস্ত করা উচিত বরখাস্ত হওয়া কর্মচারীদের অভিযোগ কাজ চালানোর মতো ইংরেজি তারা বলতে পারেন। বাংলার একটি দফতরে বিদেশি ভাষায় কথা না বলতে পারার অভিযোগে কর্মচারীদের বরখাস্ত করা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। কর্মীদের নিয়ে তাদের কাজে পুনর্বহাল করার দাবিতে এই প্রতিবাদে সামিল হয় বাংলা পক্ষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here