রাজ্যে গড়াল লোকাল ট্রেনের চাকা, আপাতত সব স্বাভাবিক থাকলেও নজর রয়েছে অফিস টাইম

0

কলকাতা: সাত মাস আগে দেশে করোনা এসে ওলট-পালট করে দিয়েছিল সমস্ত কিছুকে। ভারতে করোনা থাবা বসানোর পর থেকেই সংক্রমণ এড়াতে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল লোকাল ট্রেন। রেলের সঙ্গে রাজ্যের দীর্ঘ আলোচনার পর অবশেষে আজ অরথত বুধবার থেকে বাংলায় গড়াল লোকাল ট্রেনের চাকা। তবে লোকাল ট্রেন চালানো হচ্ছে সমস্ত করোনাবিধি মেনেই। বুধবার সকাল থেকেই শিয়ালদহ, হাওড়া সহ অন্যান্য ব্যস্ততম ষ্টেশন গুলিতে লকের সমাগম দেখা গিয়েছে। সরবধায় মাইকে করে সতর্ক করা হচ্ছে যাত্রীদের।

লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই বিক্ষভ দেখাচ্ছিল জাত্রিরা। সেই চাপ সামাল দিয়েই রাজ্য রেলের সঙ্গে বইতক করে লোকাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বলতে গেলে আজ হল রাজ্যে লোকাল ট্রেন পরিষেবার প্রথম দিনের অগ্নিপরীক্ষা। টাইম টেবিলের প্রায় ৫০ শতাংশ লোকাল ট্রেনই চালানো হবে বলে রেল সূত্রে বলা হয়েছে। পুরানো টাইম-টেবিল মেনেই চলবে লোকাল ট্রেন। অফিস টাইম ও ছুটির সময়ে বেশী ট্রেন চালানোর কথা ভাবা হয়েছে। সামাজিক দুরত্ব বিজায় রাখার জন্য ট্রেন ও ষ্টেশনে চিহ্ন দিয়ে দেওয়া হয়েছে। করোনা কালে আজ অফিসটাইমে হাওড়া ও শিয়ালদহে চলবে ১৪৮টি ট্রেন।

করোনা পরবর্তী সময়ে প্রথম লোকাল ট্রেন চালানোর পর আপাতত হাওড়া শাখায় চলবে ৩১১ টি ট্রেন, শিয়ালদহ শাখায় ৪১৩টি। হাওড়ায় পূর্ব রেল চালাবে আপ ডাউন মিলিয়ে ২০২টি ট্রেন, দক্ষিণ-পূর্ব রেল ৮১টি। যাত্রীদের যাতে অসুবিধায় পরতে না হয় সেই কারণে একাধিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে রেলের তরফে। চলছে থার্মাল স্ক্রিনিং এবং স্যানিটাইজেশন। প্রতি স্টেশনেই রয়েছে আরপিএফ, জিআরপি। সরবদাই সকল যাত্রীকে সততক করা হছে। ট্রেনেও মাইকিং করা হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত সমস্ত কিছুই স্বাভাবিক রয়েছে। কোথাও অশান্তির খবর পাওয়া যায়নি। তবে বেলা বাড়লে অফিস টাইমে কই হয় সেটাই দেখার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here