ট্রেন-বাস টার্মিনাসের নাম পরিবর্তনের পর ন্যাশনাল লাইব্রেরির ক্যাম্পাস জুড়ে এখন শুধুই নেতাজি

0

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর জন্মদিন উপলক্ষ্যে জাতীয় গ্রন্থাগারের দেওয়ালে ফুটে উঠবে নেতাজি জীবন কাহিনী। নেতাজি কীভাবে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদের সঙ্গে লড়েছিলেন ও দেশের প্রতি তার কি অবদান ছিল এবং স্বাধীনতা সংগ্রামে তার গুরুত্ব ও অবদান ইত্যাদি বিভিন্ন তথ্য গ্রন্থাগারের দেওয়ালে রঙ তুলির সংমিশ্রণে ফুটিয়ে তোলার তোরজোড় শুরু হয়ে গিয়েছে।

কেন্দ্র সরকারও পিছিয়ে নেই। দিল্লির ন্যাশনাল মিউজিয়াম অব মডার্ন আর্টে কমপক্ষে ১৫০-২০০ জন শিল্পীকে শিল্প কলার কাজে নিযুক্ত করা হয়েছে। ন্যাশনাল লাইব্রেরির ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন ধরনের চিত্রকলা পরিদর্শিত করা হচ্ছে। গ্রন্থাগারের দেওয়ালের একস্থানে নেতাজির অবদান, আবার অন্য স্থানে নেতাজির বাল্য থেকে বয়স্ক হবার জীবনকাহিনী চিত্রের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। এমন সুদর্শিত চিত্র প্রদর্শনী আগে কখনও ঘটেনি বলেই মনে করা হচ্ছে। ক্যাম্পাস জুড়ে এখন শুধুই নেতাজি। রঙ-বেরঙে ফুটে উঠেছে নেতাজির ছবিতে পরিপূর্ণ প্রাচীর।

সুভাষ চন্দ্র বসুর অবদান ভোলেনি দেশবাসী। তাঁর প্রমাণ ধরা পরেছে জাতীয় গ্রন্থাগারের দেওয়ালে।কিন্তু এত বছর পর এই উদ্যোগের কারন কি শুধুই নেতাজি ? নাকি বিধান সভার ভোটেরও সংযুক্তি রয়েছে এর সাথে? এই নিয়েই উঠছে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন। আবেগকে কাজে লাগিয়ে বাঙালীর মন পেতে রাজ্য ও কেন্দ্র এখন ব্যস্ত নিজেদের মহান প্রমাণে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে ভোট পেতেই বিধানসভা ভোটের আগে নেতাজির জন্মদিনকেই টোপ হিসেবে ব্যবহার করেছেন তাঁরা।