মোদীর মঞ্চে মমতা উঠতেই ‘জয় শ্রী রাম’ শ্লোগান, ‘অপমানিত’ বোধ করে বক্তব্য রাখলেন না মুখ্যমন্ত্রী

0

কলকাতা: শনিবার সুভাষচন্দ্র বোসের জন্মদিন উপলক্ষে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলে বিশেষ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। অনুষ্ঠানসূচী মতো সবকিছু ঠিকঠাক চলছিল। কিন্তু তাল কাটল মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতা দিতে ওঠার সময়। রীতিমত বিরক্ত, ক্ষুব্ধ হয়েই বক্তব্য বয়কট করেন। তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে পোডিয়াম ছাড়েন। অবশ্য সৌজন্যের খাতিরে আগাগোড়া মঞ্চে ছিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী।

ঘটনাটি হলো, মুখ্যমন্ত্রী বক্তৃতা দিতে মঞ্চের চেয়ার ছেড়ে পোডিয়ামের দিকে এগোতেই দর্শকাসন থেকে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান ওঠে। আর তাতেই চোটে যখন মুখ্যমন্ত্রী। সঞ্চালক বলেন ‘‘আপনারা একটু শান্ত হোন। ওঁকে (মমতাকে) কিছু বলতে দিন।’’ কিন্তু তত ক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। ক্ষুব্ধ মমতা পোডিয়ামের সামনে দাঁড়িয়ে প্রথমেই হিন্দিতে বলেন, ‘‘আমার মনে হয়, সরকারি অনুষ্ঠানের একটা শালীনতা থাকা উচিত। এটা কোনও রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি নয়। এটা সমস্ত দলেরই কর্মসূচি। জনতার কর্মসূচি।’’

সেখানেই না থেমে মমতা বলেন, ‘‘আমায় এখানে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় সংস্কৃতিমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ। কিন্তু কাউকে আমন্ত্রণ করে অসম্মান (মমতা ‘বেইজ্জত’ শব্দটি ব্যবহার করেন) করাটা শোভনীয় নয়। এর প্রতিবাদে আমি এখানে কিছু বলছি না। জয় হিন্দ! জয় বাংলা!’’ এর পরেই মমতা পোডিয়াম ছেড়ে চলে গিয়ে নিজের আসনে বসেন। যখন এই ঘটনা ঘটছে, তখন সেখানে নীরবে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। মমতার পরেই বলতে উঠে মোদী তাঁর ভাষণ শুরু করেন ‘বহেন মমতা’জি’ বলে। কিন্তু তাতেও বরফ গলেনি।