বসন্তের আমেজ উপভোগের মাঝেই মুখভার আকাশের, কলকাতা সহ রাজ্যের একাধিক জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস

0

কলকাতা: বিদায় নিয়েছে শীত। চুটিয়ে বসন্তের আমেজ উপভোগ করছেন রাজ্যবাসি। সকালে মেঘলা আকাশ থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই বাড়ছে রোদ। সবমিলিয়ে যেন এক অস্বস্তিকর আবহাওয়া। এর মধ্যেই বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস।বুধবারের পর বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই কলকাতার বেশ কিছু এলাকা মেঘাচ্ছন্ন ছিল। বুধবার কলকাতার পাশাপাশি দুই ২৪ পরগণা, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া।

ঝাড়গ্রাম, মেদিনীপুর, হাওড়া, নদীয়া, মুর্শিদাবাদ সহ দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় হালকা বৃষ্টি হয়েছে। কোনও কোনও জেলাতে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টিপাত হয়েছে। বৃহস্পতিবারের কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.৫ ডিগ্রি। গতকালের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১.৬ ডিগ্রি। বাতাসে জলীয়বাষ্পের সর্বোচ্চ পরিমাণ ৯৩ শতাংশ। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সুত্রে খবর, আগামী ৪৮ ঘণ্টাতেও কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এমনকী আগামী শনিবার পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, বীরভূম ও বর্ধমানের একাংশে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

শুধু দক্ষিণবঙ্গই নয় বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও। শুক্রবার দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহারে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, ঝাড়খণ্ডের উপর রয়েছে ঘূর্ণাবর্ত। পরপর দুটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকছে জম্মু-কাশ্মীরে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার সঙ্গে রয়েছে একটি অক্ষরেখা। সাগর থেকে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছে। পশ্চিমের ঠাণ্ডা হাওয়া ও পুবালি গরম হাওয়ার মধ্যে সংঘাত তৈরি হচ্ছে। তার জেরেই বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।