কলকাতার হোটেলে তিনজনের রহস্য মৃত্যুকে ঘিরে জল্পনা

0

কলকাতা: নিউ মার্কেটের এক হোটেলে রহস্য জনক ভেবে মৃত্যু হলো এক পরিবারের ৩ সদস্যের। তাঁরা শিলিগুড়ির বাসিন্দা বলে জানা গেছে। তাদের হোটেলের ঘর থেকে উদ্ধার হয় বিষের শিশি,ও একটি সুইসাইড নোট। তদন্তে নেমেছে নিউ মার্কেট থানার পুলিশ। নিউ মার্কেটের ১৭, রফি আহমেদ কিদোয়াই রোডের একটি হোটেলে সোমবার দুপুর দেড়টা নাগাদ শিলিগুড়ি থেকে এসে ওঠেন তিনজন বাসিন্দা। সুশীল বনশাল, ছন্দাদেবী বনশাল এবং সুনীত বনশাল নামে তিনজন।

তারা শিলিগুড়ির সেবক রোডের বাসিন্দা। জানা যাচ্ছে, সোমবার রাতের খাবার হিসেবে তাঁরা রুটি, চানা দেওয়ার কথা জানায় হোটেলে। এর পর খাবার নিয়ে তারা রাত সাড়ে নটা নাগাদ ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেয়। তারপর আজ মঙ্গলবার বেলা বাড়লেও তারা ওই ঘর থেকে কেউ না বেরনোয় হোটেল কর্মীদের সন্দেহ হয়। এরপরেই হোটেল পক্ষে খবর দেওয়া হয় নিউ মার্কেট থানায়। ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছালে তারপরে হোটেল কর্মীরা দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকে, এর পরেই তারা দেখে তিন সদস্যই অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছেন। তাদের পাশে বিষের শিশি এবং সুইসাইড নোট।

পুলিশ তরফে খবর, সুইসাইডে নোটে তাঁরা আত্মহত্যার কথা উল্লেখ করেছেন। কিন্তু কী কারণে তাঁরা শিলিগুড়ি থেকে কলকাতায় এসে আত্মহত্যার এই সিদ্ধান্ত নিলেন, তা নিয়ে থেকে যাচ্ছে প্রশ্ন। অপর দিকে তাঁরা খুন হতে পারেন বলেও এই সম্ভাবনাও সম্পূর্ন উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। পুলিশের পক্ষে জানানো হয়েছে, মৃত সুশীল বনশালের বয়স ৬৬ বছর, ছন্দাদেবী ৬০ বছরের এবং সুনীত সিংয়ের বয়স ৪৫ বছর। তাঁদের মৃত্যুর খবর পাঠানো হয়েছে তাদের শিলিগুড়ির সেবক রোডের বাড়িতে। এক সূত্রে খবর মারফত জানা গেছে , সুনীত সিংহের মানসিক সমস্যা ছিল। তাঁকে নিয়ে বিপর্যস্ত ছিল তার পরিবার। সেই কারণেই কি তবে এই আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত? এখন তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ । মৃতদেহগুলি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।