তপসিয়ার জুতার কারখানায় ভয়াবহ আগুন! ঘটনাস্থলে দমকলের ১০টি ইঞ্জিন 

0

কলকাতা:  আগুনের গ্রাস থেকে রেহাই মিলছে না কলকাতার।স্ট্র্যান্ডরোডে রেলের অফিসের পর, স্ট্র্যান্ড রোডে পাঞ্জাব ব্যাংকের প্রধান অফিসেও লাগে আগুন। গতকাল লেনিন সরণীতে আগুন লেগেছিল। এদিক শনিবার সকাল হতে না হতেই আগুনে ভস্মীভূত তপসিয়ার জুতোর কারখানা। ভোর চারটে নাগাদ ২১ নম্বর তপসিয়া রোডে জুতোর কারখানায় আগুন লাগে। কিছুক্ষণের মধ্যেই পুরো বাড়িটি আগুনের গ্রাসে চলে যায়। ধোঁয়ায় ঢেকে যায় গোটা এলাকা। স্থানীয়রাই কারখানার ছাদ ভেঙে নিরাপত্তারক্ষীকে উদ্ধার করেন। ততক্ষণে কারখানার ভিতরে পাঁচিল ভেঙে পড়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে দমকলের ১০টি ইঞ্জিন।

প্রসঙ্গত, সেই সময় কারখানার ঘরগুলিতে বেশ কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন। সবাই সজাগ থাকায় দ্রুত সবাই ঘর থেকে বাইরে বেরিয়ে আসেন। আগুন লাগার ফলে কারখানার একটি দেওয়াল ভেঙে পড়ে। অথচ ভিতরে তখনও এক নিরাপত্তারক্ষী ছিলেন। তাঁকে উদ্ধার করতে স্থানীয় বাসিন্দারা কারখানার ছাদ ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করে নিরাপত্তারক্ষীকে বের করে আনে। পুলিশ এবং স্থানীয় বাসিন্দাদের তৎপরতায় সবাইকে নিরাপদে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়। এই ঘটনায় কেউ আহত হননি বলেই জানা গেছে পুলিশ সূত্রে। কারখানাটির বেশ কয়েকটি ঘর সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে যায়। তপসিয়ার কাছে কারখানাটিতে আগুন লাগার ঘটনা নিয়ে বেশ চাপে পড়ে যান দমকলের আধিকারিকরা এবং পুলিশ কর্মীরা। ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় প্রথমে আগুন নেভাতে কিছু সমস্যার সৃষ্টি হয়।

৩ ঘণ্টা ধরে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় লড়াই করার পর পরিস্থিতি আপাতত নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলেই জানাচ্ছেন দলকলবাহিনীর আধিকারিকরা। তবে কী থেকে এই আগুন লাগল তা এখনও বোঝা যাচ্ছে না। দমকল আধিকারিকদের মতে, ওই কারখানার ভিতরে যাঁরা ছিলেন তাঁদের প্রত্যেককে বাইরে বের করে আনা হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্ত করে খতিয়ে দেখা হবে বলেই জানান পুলিশ কর্তারা এবং দমকলের আধিকারিকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here