করোনা রুখতে আজ থেকেই বন্ধ কলকাতার এই বাজারগুলি, কবে খুলবে-জানুন বিস্তারিত

0

কলকাতা: কোভিডে ভয়াবহ অবস্থা খাস কলকাতায়। যাতে গোষ্ঠী সংক্রমণের রূপ না নেয়, সে জন্য এবার কলকাতার একাধিক বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কনফেডারেশন অব ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রেড অ্যাসোসিয়েশন। সংগঠনের তরফে ফেডারেশনের কর্তারা সিদ্ধান্ত নিয়ে জানিয়েছে যে, কলকাতার কয়েকটি অ-অপরিহার্য পণ্য বাজার বন্ধ রাখা হবে চার দিন। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের বাজারগুলি খোলা থাকলেও বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বন্ধ রাখা হবে চাঁদনী চক, প্রিন্সেপঘাট, এজরা স্ট্রিট, ম্যাঙ্গো লেন, ক্যানিং স্ট্রিট ছাড়াও একাধিক এমন বাজার।

তবে পোস্তা বাজার এবং অন্যান্য একাধিক বাজারগুলিতে খাদ্য দ্রব্য এবং অন্যান্য অপরিহার্য সামগ্রীও পাওয়া যাবে। উল্লেখ্য, বুধবার এই সিন্ধান্তের কথা জানিয়েছে কনফেডারেশন অব ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রেড এসোসিয়েশন। সংগঠনের প্রধান সুশীল পোদ্দার এদিন জানিয়েছেন, ‘আমাদের সকল ব্যবসায়ী সদস্যদের কাছে আমাদের আবেদন তাঁরা যেনও আগামী ৪ দিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত তাঁদের দোকানপাট বন্ধ রাখেন।’ শুধুমাত্র বড় বড় বাজারগুলিই বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা নয়। এলাকাভিত্তিক অনেক বাজার সাময়িক বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে এই সিদ্ধান্ত সেই এলাকার পৌরসভার তরফ থেকে নেওয়া হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। এহেন ভয়ানক পরিস্থিতিতে কামারহাটি পৌরসভার তরফ থেকে এক অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

কামারহাটি পৌরসভার পৌরপ্রধান গোপাল সাহা মহাশয় জানিয়েছেন,’ আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি বৃহস্পতিবার থেকে কামারহাটি এলাকার সমস্ত বাজার সকাল 6 টা থেকে বিকেল তিনটে পর্যন্ত খোলা থাকবে। বাজারের পাশাপাশি দোকানপাটও বিকেল তিনটের পর বন্ধ করে দিতে হবে। শুধুমাত্র প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দোকান খোলা থাকবে। আর কেউ যদি মাস্ক না পড়ে রাস্তায় বেরোয় তাহলে তাকে গ্রেফতার করা হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া অব্দি এই সিদ্ধান্ত জারি থাকবে।’

অপরদিকে, রাজ্য সরকারের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৭,৪০৩ জন৷ শেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৮৯ জনের৷ পশ্চিমবঙ্গে মোট মৃতের সংখ্যা ১১ হাজার ২৪৮ জন৷ মোট আক্রান্ত ৮ লক্ষ ১০ হাজার ৯৫৫ জন৷ এর মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬ লক্ষ ৮৯ হাজার ৪৬৬ জন৷ তার ফলে এই মুহূর্তে রাজ্যে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ১ লক্ষ ১০ হাজার ২৪১৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here