করোনা চিকিৎসার ওষুধের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হল রেমডিসেভিরকে, নির্দেশ WHO-এর 

0

নয়াদিল্লি: করোনা আক্রান্ত রোগীদের উপর আগেই সতর্ক করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অ্যান্টি ভাইরাল ওষুধ রেমডিসেভির ব্যবহার করার বিষয়ে। এবার বাতিল করা হলো রেমডিসেভিরকে। সোমবার এই বিষয়ে সতর্ক করেন দিল্লি এইমসের ডিরেক্টর রণদীপ গুলেরিয়া। তিনি জানান করোনা চিকিৎসায় এই রেমডিসেভির এর কোনো ভূমিকা নেই। একমাত্র সেই সকল রোগী কে এই ওষুধ দেওয়া যেতে পারে যারা করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন অর্থাৎ যাদের শরীরে অক্সিজেন মাত্রব কম হয়ে যাচ্ছে এবং এক্স রে বা সিটি স্ক্যানে বুকে কোনও সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

সকলের জেনে রাখা ভালো এটি কোনো ম্যাজিক ওষুধ নয়। এছাড়াও করোনায় মৃত্যু কম করার ক্ষেত্রেও এর কোনো ভূমিকা নেই। যে সকল রোগীর শরীরে খুব কম উপসর্গ আছে তাদের শরীরে যেমন এই ওষুধ কাজ দেয়না ঠিক তেমনি বেশি দেরিতে এটি প্রয়োগ করলেও কোনো কাজ হয় না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে ইতিমধ্যে এই রেমডিসেভির কে করোনা চিকিৎসার ওষুধের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এখন থেকে আর ওই ওষুধ করোনা চিকিৎসায় ব্যবহার করা যাবে না।

উল্লেখ্য বর্তমানে পৃথিবীর ৫০ টি দেশে করোনা চিকিৎসায় এই রেমডিসেভির ব্যবহার করা হয়। ভারতের একাধিক ওষুধ প্রস্তুত কারক সংস্থা ইতিমধ্যে এই ওষুধের তৈরি শুরু করে দিয়েছে।তার মধ্যেই হু এর এই নির্দেশ। হু-র তরফে আরও বলা হয়েছে , হাসপাতালে ভর্তি যেসব করোনা রোগী তাদের জন্য রেমডিসিভির ব্যবহারের কথা কখনওই বলা হয়নি। কারণ এই ওষুধ যে এই সংক্রমণের ফলে মৃত্যু ঠেকিয়ে দিতে পারে এমন কোনও প্রমাণ মেলেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here