আসাদুদ্দিনকে গ্রেফতার করা উচিত: বিজেপি সাংসদ

0

নয়াদিল্লি: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন এবং প্রস্তাবিত নাগরিক পঞ্জিকরণের বিরুদ্ধে তেলেঙ্গানায় সভা করতে চলেছেন AIMIM-প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। অন্যদিকে আসাদুদ্দিনের উপর কটাক্ষের তির ছুঁড়লেন তেলেঙ্গানার নিজামাবাদের বিজেপি সাংসদ অরবিন্দ ধর্মপুরী।

এদিন ধর্মপুরী বলেন, “তেলেঙ্গানার পৌর নির্বাচনের আগে থেকে নিজামাবাদে আচার সংহিতা চালু রয়েছে। আসাদুদ্দিন এখানে এইভাবে জনসভা করতে পারেন না”। শুধু তাই নয়, এই বিষয়ে জেলার কালেক্টর, নির্বাচনী দফতর এবং পুলিশকেও চিঠি দিয়েছেন তিনি।

সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ধর্মপুরী বলেন, “সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন অসাংবিধানিক। আসাদুদ্দিন এখানে কিভাবে সভা করতে পারেন? কেননা, তেলেঙ্গানার পৌর নির্বাচনের আগে থেকেই নিজামাবাদে আচার সংহিতা চালু আছে। আমি এই বিষয়ে ইতিমধ্যেই জেলা কালেক্টর, নির্বাচন কমিশন এবং পুলিশকে চিঠি দিয়েছি”।
এখানেই শেষ নয়, আসাদুদ্দিন দেশকে ভাগ করার চেষ্টা করছে বলেও মন্তব্য করেন ধর্মপুরী।

তিনি বলেন, “বাংলাদেশ এবং পাকিস্তান থেকে আগত অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে উনি কি রুখে দাঁড়াতে পারবেন? উনি একজন দেশদ্রোহী”। “আসাদুদ্দিনের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগ আনা উচিত এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ওঁকে গ্রেফতার করা উচিত”, বলেন ধর্মপুরী।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং আফগানিস্তান থেকে আগত অ-মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া নিয়ে লোকসভায় পাশ হয় নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন। এই আইনে বলা হয় ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের আগে ভারতে আসা অমুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। এই আইনের ফলে ভারতের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের অধিকার ছিনিয়ে নেওয়া এবং দেশের সার্বভৌমত্ব নষ্ট হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন সমালোচকেরা।