লকডাউনের মাঝেই বন্ধ থাকতে পারে বেশ কিছু ব্যাঙ্ক

0

নয়াদিল্লি: করোনা আতঙ্কে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। সাধারণ মানুষের কপালে পড়েছে চিন্তার ভাঁজ। এরই মাঝে সেই চিন্তা বেড়ে যেতে পারে। কারণ সূত্রের খবর অনুযায়ী, লকডাউন চলাকালীন ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক এবং প্রধান ঋণদাতারা কয়েক হাজার কর্মচারীদের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়া থেকে রুখতে তাদের বেশিরভাগ শাখা বন্ধ করে দেওয়ার কথা ভাবছে।

ভারত এখনও নগদ টাকার চল রয়েছে এবং ব্যাঙ্কগুলি এই সপ্তাহে শুরু হওয়া ২১ দিনদেশব্যাপী লকডাউন থেকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছিল কারণ ব্যাঙ্ক একটি অপরিহার্য পরিষেবা হিসাবে বিবেচিত হয়। জানা গিয়েছে, বড় শহরগুলিতে প্রতি পাঁচ কিলোমিটারে কেবল একটি ব্যাঙ্কের শাখা খোলা থাকবে।

কিন্তু এই বিষয়ে এখনও সরকারিভাবে কোনো ঘোষণা করা হয়নি। গ্রামাঞ্চলে, যেখানে ৭০ শতাংশ মানুষ বাস করেন এবং প্রায়শই তারা কেবল নগদে ভরসা করেন, সেই সব জায়াগায় ব্যাঙ্কগুলি সম্ভবত বিকল্প দিনগুলিতে কাজ করবে এবং দরিদ্রদের মধ্যে কেবল নগদ বিতরণ করার জন্য কর্মচারী থাকবে।

“সাধারণ নির্দেশিকাটি হল শাখাগুলি মূলত গ্রামগুলির জন্য কেবল সেই সমস্ত লোকদের যত্ন নেবে যারা ডিজিটাল লেনদেনের সাথে পরিচিত নয়। ব্যাঙ্কগুলি একে অপরের সাথে এমন পরিস্থিতি সামাল দিতে কথা বলছে। যেখানে নগদ উত্তোলনের জন্য কিছুটা ভিড় হবে কারণ আশা করা যায় যে সরকার দরিদ্রদের সরাসরি তাদের অ্যাকাউন্টে নগদ সরবরাহ করবে”, একটি রাষ্ট্র পরিচালিত ব্যাঙ্কের এক প্রবীণ ব্যাঙ্ককর্মী এমনটাই বলেছেন।