‘নোংরা রাজনীতি’ চলছে মুসলিমদের বিরুদ্ধে, শীর্ষ আদালতে অভিযোগ দায়ের জামিয়াত উলেমা হিন্দের

0

নয়াদিল্লি: করোনা আতঙ্ক দেশে যেন আরও বাড়িয়ে নিয়েছে নিজামুদ্দিনের মসজিদে জমায়েতের ঘটনা। এমনকি দিল্লির এই ঘটনা এক ধাক্কায় ভারতে করোনা সংক্রমণের হারকে বাড়িয়ে দিয়েছে। দিল্লি তাবলিঘি নিয়ে যখন এত মাথা ব্যাথা হচ্ছে সকলের তখন মুসলমান সমাজের বিরুদ্ধে ভুয়ো খবর ছড়ানো হচ্ছে এই অভিযোগ তুলে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে জামিয়াত উলেমা হিন্দ।

আইনজীবী ইজাজ মকবুল মারফত হলেন জামিয়াতের আইনি শাখার সেক্রেটারি। মুসলমান সমাজকে কলঙ্কিত করতে বারবার তাবলিঘির প্রসঙ্গ টানা হচ্ছে এই অভিযোগ তুলে সোমবার তিনি শীর্ষ আদালতে একটি পিটিশান দায়ের করেছেন। পাশাপাশি তিনি আরও অভিযোগ করে বলেছেন, তাবলিঘি নিয়ে অনেক মিথ্যা খবর সম্প্রচার করা হচ্ছে। এবং এগুলি সবাটাই পরিকল্পিত ভাবে করা হচ্ছে মুসলিম সমাজকে কলঙ্কিত করতে। এমনকি তিনি সংবাদমাধ্যমের একাংশের দিকেও আঙুল তুলেছেন জামিয়াতের ঘটনার মিথ্যা প্রচারের জন্য।

জামিয়াত উলেমা হিন্দের পক্ষ থেকে আরও অভিযোগ করা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে তাবলিঘি নিয়ে একাধিক ভুয়ো ভিডিও। যার কোনই ভিত্তি ও সত্যতা নেই। এই ঘটনাগুলি মিথ্যা ভাবে ছড়িয়ে মুসলিম সম্প্রদায়ের উপর বিদ্বেষ বাড়িয়ে তোলা হচ্ছে। সেইসব ঘটনার প্রচার করছে সংবাদমাধ্যেমের একাংশ। এই সমস্ত অভিযোগের ভিত্তিতেই শীর্ষ আদালতের দারাস্থ হয়েছে জামিয়াত উলেমা হিন্দ। এই মুহূর্তে ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় চার হাজার। আর এই সংখ্যার মধ্যে প্রায় ১৪৪৫ জনের করোনা সংক্রমণ হয়েছে দিল্লির নিজামুদ্দিনের জমায়েতে অংশগ্রহণ করার জন্য।

দিল্লি এআইএমএস-এর পরিচালক জানিয়েছেন ভারতে বেশ কিছু জায়গাতে কমিউনিটি ট্রান্সমিশান শুরু হয়েছে। যা করোনা সংক্রমণের তৃতীয় ধাপ। এই ঘটনার জন্য তিনি দায়ী করেছেন তাবলিঘি জামিয়াতকে। তবে সামগ্রিক ভাবে ভারত এখনও দ্বিতীয় স্তরে রয়েছে বলেই জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেছেন এই পরিস্থিতিতে করোনা রুখতে আরও বাড়তি ভাবে সতর্ক হতে হবে মানুষকে।