জরুরি সময়েও ভারতকে র‍্যাপিড টেস্ট কিট পাঠাতে ঢিলেমি করছে চিন

0

নয়াদিল্লি: সোমবার ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ (আইসিএমআর) বলেছিল যে, দ্রুত করোনা পরীক্ষার র‍্যাপিড টেস্ট কিটগুলি ৫ এপ্রিল পৌঁছে যাওয়ার কথা এবং তারপরে ১০ এপ্রিল তা পৌঁছে যাবে বলে মনে করা হয়েছিল। চিন থেকেই আসার কথা ছিল প্রায় ৫০ লক্ষ র‍্যাপিড টেস্ট কিট। যাতে সহজেই ধরা যাবে করোনার সংক্রমণ। কিন্তু এই কিটগুলি ভারতে পাঠাতে দেরি করছে চিন।

তারা জানিয়েছে যে, অপেক্ষা করতে হবে আরও দশ দিন। বলা বাহুল্য, চিন থেকেই উৎপত্তি হয়েছিল মারণ এই ভাইরাসের। কিন্তু এখন চিনের উহান প্রদেশে পরিস্থিতি স্বাভাবিক। অন্যদিকে, ভারত থেকে প্রায় ৪০ থেকে ৫০ লক্ষ র‍্যাপিড টেস্ট কিট সুরবরাহ করা হয়েছে চিনের এক সংস্থাকে। চিনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, “আমরা একটু পরীক্ষা করে দেখবো কিট গুলো ঠিক আছে কি না।”

কিন্তু এইরকম জরুরি পরিস্থিতিতে চিনের এই ধরণের কথাবার্তার কোনো ভিত্তি নেই বললেই চলেই। তবে এতে ভারত সরকারেরও কিছু করার নেই। জানা গিয়েছে, প্রতি কিটের দাম প্রায় ৬০০ টাকা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বেজিংয়ের ন্যাশনাল মেডিক্যাল প্রোডাক্ট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন একটি নির্দেশিকায় জানায় যে, এখনই কোনো কিট রপ্তানি করা হবে না। তবে চিনের এই ধরণের গাফিলতিতে দেশে আরও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।