স্বাস্থ্যকর্মীদের হামলা করলে মোটা অঙ্কের জরিমানা সহ হাজতবাসের নয়া আইন কেন্দ্রের

0

নয়াদিল্লি: করোনার হাত থেকে বাঁচিয়ে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরিয়ে আনতে যারা আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন সেই চিকিৎসকদের ওপর এই চলছে অত্যাচার। চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের ওপর নিগ্রহ বন্ধ করার জন্য মহামারী আইন ফিরিয়ে আনার কথা বললেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভেদকর। কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে চিকিৎসক বা স্বাস্থ্যকর্মী ওপর হামলা করলে জেল সহ মোটা অঙ্কের জরিমানা হতে পারে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভেদকার জানিয়েছেন স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতেই ফিরিয়ে আনা হবে মহামারী আইন। যারা এই আইন অমান্য করে চিকিৎসক বা স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর হামলায় অভিজুক্ত হলে এক লক্ষ থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা জরিমানা এবং ছয় থেকে সাত বছরের জেল হতে পারে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন “যখন গোটা দেশ স্বাস্থ্যকর্মীদে কুর্নিশ করছে তখন কিছু মানুষ স্বাস্থ্যকর্মীদের বারবার আঘাত করছেন। বলছেন, তাঁরাই নাকি সংক্রমণ ছড়াচ্ছে। আমরা এই আক্রমণ কিছুতেই বরদাস্ত করব না।”

তিনি আরও বলেছেন, “এই আইন সমস্ত চিকিৎসা কর্মীদের বিমার আওতাও আনবে।” আপাতত অর্ডিন্যান্সটি রাষ্ট্রপতিভবনে পাঠানো হয়েছে। তিনি স্বাক্ষর করলেই আইনটি বলবৎ হবে।” করোনা চিকিৎসা করার সময় চিকিৎসক বা স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর হামলার একাধিক অভিযোগ উঠেছে।

দেশে করোনা সঙ্কটের মধ্যে চিকিৎসকদের উপর আক্রমনের অভিযোগে প্রতিবাদে দেশজুড়ে হোয়াইট অ্যালার্ট জারি করে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (আইএমএ)। এর পরই বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে আইএমএ চিকিৎসকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন এবং তাদের ভাল কাজের প্রশংসা করেছেন। অমিত শাহ এবং কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের সঙ্গে বৈঠকের পরে প্রতীকী আন্দোলন তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন।