পরিযায়ী শ্রমিকদের রেলযাত্রার খরচ বহন করবে কংগ্রেস: সনিয়া গান্ধী

0

নয়াদিল্লি: ভারতের মাথা থেকে করোনার কালো ছায়া কিছুতেই সরতে চাইছে না। সংক্রমণ রুখতে তৃতীয় দফার লকডাউনের কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্র সরকার। তবে এই লকডাউনের মধ্যে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের নিজ বাড়িতে ফেরার জন্য বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। কংগ্রেস নেত্রী সনিয়া গান্ধী জানিয়েছেন এই পরিযায়ী শ্রমিকদের রেল সফরে যে অর্থ খরচ হবে তার ব্যয়ভার বহন করবে প্রতিটি রাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেস।

পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে ইতিমধ্যে যাত্রা শুরু করেদিয়েছে বিশেষ কয়েকটি ট্রেন। কিন্তু বিজেপি সরকার এই ট্রেন সফরের জন্য পরিযায়ী শ্রমিকদের থেকে অর্থ চেয়েছে এমন সংবাদ প্রকাশ্যে এসেছে। তাই অভাবী শ্রমিক এবং পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়াতে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে প্রতিটি রাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেস পরিযায়ী শ্রমিকদের রেলযাত্রার খরচ বহন করবে এবং এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। ঠিক এমনটাই জানিয়েছেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী।

লকডাউনের পর থেকেই পরিযায়ী স্রমকদের সুরক্ষা ও উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সরকারের কাছে বারবার আবেদন করেছে কংগ্রেস। বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর কথা প্রথম থেকেই সরকারকে বলে আসছে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের নেতা-নেত্রীরা। লকডাউনের কারণে পরিযায়ী শ্রমিক থেকে শুরু করে ভিন রাজ্যে আটকে পড়া মানুষদের জন্য তৎপরতা দেখিয়ে আসছেন কংগ্রেস নেতা ও সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী। পশ্চিমবঙ্গের পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখেছেন।

কংগ্রেস নেতা চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রীকে বলেন, “পরিযায়ী শ্রমিক ও অন্যান্য আটকে পড়া মানুষগুলো খুব অস্থির হয়ে পড়েছে বাড়ি ফেরার জন্য। আপনি আমাকে আপনার সরকারের পক্ষ থেকে কাজে লাগান। আপনার নোডাল অফিসারদের আরও কার্যকরী হতে হবে। অন্য রাজ্য গুলো ট্রেন পাচ্ছে, আপনি এখনও একটাও ট্রেন পেলেন না। আমি আপনাকে সহযোগিতা করতে চাই। কোনো রাজনৈতিক ধান্দাবাজি নয়। পরিযায়ী শ্রমিকরা কাঁদছে, সব প্রোটোকল মেনে তাদের ফিরিয়ে নিয়ে আসুন।” বর্তমান পরিস্থিতিতে পরিযায়ী শ্রমিকদের যাতে কোনও অসুবিধা না হয় সেই কারণেই তাঁদের পাশে কংগ্রেস দাঁড়াবে বলেই জানিয়েছেন কংগ্রেস সভানেত্রী।