পোলট্রি ফার্মে মিলল সবুজ কুসুমের ডিম, হতবাক বিশেষজ্ঞরা

0

তিরুঅনন্তপূরম: ডিম তো প্রায় প্রত্যেকেই খেয়েছেন। সকালের জলখাবারে সেদ্ধডিম অথবা পোচ থেকে শুরু করে বাঙালির প্রধান খাদ্যের তালিকাতেও থাকে ডিমের নানারকম পদ। আবার শিশুদের পুষ্টি হোক কিমবা সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হতে গেলে খাদ্যতালিকায় ডিম থাকা আবশ্যক। নির্ভেজাল প্রোটিনের এমন ভান্ডার খুব কম খাদ্যদ্রব্যেই রয়েছে। তবে ডিম বললেই যে ছবিটা সকলের চোখের সামনে ভেসে ওঠে তা হল ধবধবে সাদা পর্দার ভেতরে উজ্জ্বল হলুদ বর্ণের এক কুসুম। কিন্তু কখনও ভেবে দেখেছেন যে এই ডিম ভাঙার সঙ্গে সঙ্গে হলুদের পরিবর্তে অন্য কোনও রঙের কুসুম যদি বাটিতে পড়ে?

অবাক লাগছে! সম্প্রতি এই ঘটনা ঘটেছে খাস ভারতভূমিতে। সম্প্রতি কেরলের মলপ্পূরমের এক বাসিন্দার ফেসবুকে পোস্ট করা এক ভিডিও ইতিমধ্যেই বৈজ্ঞানিক সহ সাংবাদিকদের তাক লাগিয়ে দিয়েছে। এ কে শিবাবুদ্ধিন নামক ওই ব্যক্তি জানিয়েছেন যে নয় মাস আগে তাঁরা দেখেন পোলট্রি ফার্মের একটি ডিমের কুসুম সবুজ! ঘটনাটি দেখে প্রথমে তাঁরাও অবাক হয়ে যান। এরপর পই বিশেষ মুরগির ডিমগুলিকে সংরক্ষন করতে শুরু করেন তাঁরা। এইভাবে মোট ছটি মুরগির থেকে সবুজ কুসুম ওয়ালা ডিম পান তাঁরা।

শিবাবুদ্ধিন বলেন, “এখন আমরা ডিমগুলিকে খাওয়া শুরু করেছি। সাধারণ ডিমের সঙ্গে এর স্বাদের কোনোরকম পার্থক্য নেই। কিন্তু রঙ গাড় সবুজ”। এরপরেই ওই ডিমের একটি ভিডিও করে ফেসবুকে পোস্ট করেন শিবাবুদ্ধিন। তারপর কেরলের পশু বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন বিশেষজ্ঞ গিয়ে ডিমগুলিকে পরীক্ষা করেন।

ডঃ এস শঙ্করলিঙ্গম বলেন, “এটি একটি বিরল ঘটনা। সম্ভবত ওই মুরগিকে দেওয়া খাদ্যের উপর এর ডিমের রঙ নির্ভর করছে। আমরা ডিমগুলিকে পরীক্ষা করা শুরু করেছি”। অন্যদিকে শিবাবুদ্ধিন জানিয়েছেন যে অন্যান্য মুরগিদের মত ওই বিশেষ মুরগিগুলিকেও চাল এবং নারকোলের কেক খেতে দেওয়া হয়। এখন কেরল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞদের পরীক্ষার ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করছেন শিবাবুদ্ধিন।