নাগরিকের উদ্ভাবনী চেতনা দ্বারা চালিত হচ্ছে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই: মন কি বাতে মন্তব্য মোদীর

0

নয়াদিল্লি: রবিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁর ৬৫ তম রেডিও অনুষ্ঠান মন কি বাতে ভারতীয়দের মধ্যে উদ্ভাবনের চেতনার প্রশংসা করেছেন এবং বলেছেন এই চেতনা করোন মহামারী মোকাবেলায় দেশকে সহায়তা করছে।

প্রধানমন্ত্রীর মাসিক রেডিও অনুষ্ঠান মন কি বাতে তিনি বলেছেন, “আর একটি জিনিস, যা আমার মনে ছুঁয়েছে, তা হচ্ছে সঙ্কটের এই সময়ে উদ্ভাবন। তিনি গ্রাম থেকে শুরু করে শহরে, ছোট ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে আমাদের ল্যাবগুলি করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের নতুন উপায় উদ্ভাবন করছে।” তিনি বলেন, “যে কোনও পরিস্থিতির পরিবর্তন ইচ্ছাশক্তি ছাড়াও অনেক কিছুই উদ্ভাবনের উপর নির্ভর করে। অবিচ্ছিন্ন, নতুনত্বের দ্বারা মানবজাতির হাজার হাজার বছরের যাত্রা এত আধুনিক যুগে পৌঁছেছে, অতএব, এই বিশেষ উদ্ভাবনগুলিও এই মহামারীর উপরে আমাদের জয়ের এক বড় ভিত্তি।”

প্রধানমন্ত্রী মহারাষ্ট্রের নাসিকের রাজেন্দ্র যাদবের “খুব আকর্ষণীয়” উদাহরণ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী এই প্রসঙ্গে বলেন, সাতনার কৃষক যাদব তার গ্রামটি করোনভাইরাস সংক্রমণ থেকে বাঁচাতে ট্র্যাক্টরের সাথে সংযুক্ত করে একটি স্যানিটেশন মেশিন তৈরি করেছেন। “এবং এই উদ্ভাবনী মেশিনটি খুব কার্যকরভাবে কাজ করছে” বলেই জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক “আগামী ১ জুন থেকে শুরু হওয়া এক মাসের জন্য কনটেন্ট জোনগুলির বাইরে সমস্ত কার্যক্রম” পুনরায় চালু করার নির্দেশিকা জারি করার একদিন পরেি প্রধানমন্ত্রী এই সমস্ত বক্তব্য রেখেছেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র আরও বলেছেন, অর্থনীতির একটি বড় অংশ উন্মুক্ত হওয়ার পরে জনগণকে আরও সতর্ক হতে হবে। তিনি জাতির উদ্দেশ্যে বলেন, “সমস্ত সতর্কতার সাথে বিমানগুলি উড়তে শুরু করেছে এবং ধীরে ধীরে এই শিল্পটি চলতে শুরু করেছে, অর্থাত্ অর্থনীতির একটি বিশাল অংশ উন্মুক্ত হয়ে গেছে। এমন পরিস্থিতিতে আমাদের আরও সচেতন হওয়া দরকার।” সতর্কতা অবলম্বনের বিষয়ে তাঁর বক্তব্য “দু-গজ ব্যবধানে থাকা উচিত এবং সকলের মাস্ক ব্যবহার করা উচিত এবং যতটা সম্ভব, ভিতরে থাকা উচিত। আপনাদেরকে অবশ্যই এই সমস্ত জিনিস অনুসরণ করতে হবে এবং এগুলি অমান্য করা উচিত নয়।”

প্রধানমন্ত্রী করোনা সংক্রমণ রোধের জন্য একটি সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে ২৪ শে মার্চ দেশব্যাপী ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন। এই লকডাউন অনেকটাই শিথিল ভাবে পঞ্চম দফায় পা দিতে চলেছে।