বয়কট চিনের মাঝেই বিতর্কিত মন্তব্য করলেন শাওমির ভারতীয় শাখার ম্যানেজিং ডিরেক্টর

0

নয়াদিল্লি : লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় সেনাদের উপর চিনের অতর্কিত আক্রমণের পর ভারতবাসীরা স্বাভাবিক অর্থে ক্ষিপ্ত চিনের উপর। আর যখন দেশজুড়ে চিনা দ্রব্য বয়কটের আওয়াজ উঠেছে, তখন তারই মাঝে বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন শাওমির ভারতীয় শাখার ম্যানেজিং ডিরেক্টর মানু জৈন।

এই বয়কট চিন প্রতিবাদের অন্যতম টার্গেট হল চিনা মোবাইল কোম্পানি শাওমি। আর তারই প্রসঙ্গে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সাথে সাক্ষাৎকারে মানু জৈন বলেন, “অবশ্যই, সোশ্যাল মিডিয়ায় আমাদের নিয়ে তীব্র ক্ষোভ উগরে উঠেছে, যা আমাদের ভুগতে হচ্ছে। কিন্তু সেটি কি আমাদের ব্যবসায় কোনও প্রভাব পড়বে? আমার মনে হয় না।”

পাশাপাশি তিনি এও দাবি করেন যে তার কোম্পানি (শাওমি) অন্যান্য দেশি মোবাইল কোম্পানির তুলনায় বেশি ‘ভারতীয়’। এই কারণ হিসেবে মানু জৈন বলেন, “আমাদের তৈরি করা স্মার্টফোন ও স্মার্ট টিভির ৬৫ শতাংশ কাঁচামাল আসে আমাদের দেশ থেকে। এটি সম্পূর্ণ দেশীয় নেতৃত্বে তৈরি হয়েছে। এবং এটি ভারতের ৫০ হাজার মানুষকে চাকরি দিয়েছে। আর সবথেকে বড় কথা, ভারতীয় ব্যবহারকারীদের ১০০ শতাংশ ডেটা ভারতেই থাকে।”

এরপর ভারতীয় মোবাইল উৎপাদনকারীদেরকেও এক হাত নেন শাওমির এমডি। তিনি বলেন, “অনেক তো ভারতীয় ব্র্যান্ড এসেছিল, যারা নিজেদের হোম স্ক্রিন পর্যন্ত পাল্টায়নি। শুধু লোগো বদলে নিজেদের ভারতীয় ফোন বলে দাবি করেছে।”

সবশেষে বয়কট চিন কর্মসূচিকে নিয়ে জৈন বলেন, “গত ১০ দিনে এক কি দুবার এই আওয়াজ উঠেছে। এক বা দুই দফায় মানুষ বাইরে বেরিয়ে আমাদের দোকানের সামনে স্লোগান দিয়েছে। আমরা এখনও কোনও বড় পদক্ষেপ নিতে দেখিনি। কিন্তু এটি, আমাদের কাছে, একটি সামান্য টুইটার কর্মসূচির মত লাগছে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here