একদিকে চিন-বিরোধী আন্দোলন, অন্যদিকে পিএম কেয়ারস ফান্ডে চিনা কোম্পানির থেকেই কেন নেওয়া হচ্ছে অনুদান? প্রশ্ন কংগ্রেসের

0

নয়াদিল্লি: রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশনে চিনের কাছ থেকে ফান্ড গ্রহণ করা নিয়ে কটাক্ষের মুখে পড়েছে কংগ্রেস। তবে এবার পিএম কেয়ারস ফান্ডেও টাকা আসছে চিন থেকে বলে পাল্টা অভিযোগ তুলল কংগ্রেস। সেইসঙ্গে ‘চিনের প্রতি দুর্বলতা রয়েছে’ বলে প্রধানমন্ত্রীর দিকে আঙুল তুলল ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস।

দলের মুখপাত্র অভিষেক সিঙ্ঘভি বলেন, “মে মাসের ২০ তারিখে ৯,৬৭৮ কোটি টাকা ঢুকেছে বিতর্কিত পিএম কেয়ারস ফান্ডে। একদিকে যখন ভারতভূমিতে থাবা বসাতে মরিয়া চিন, তখন অন্যদিকে চিনা কোম্পানির থেকে সাহায্যের টাকা নিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী”। এরপরেই নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশ্যে তাঁর প্রশ্ন, “বিতর্কিত সংস্থা হুয়াওই-এর কাছ থেকে কি ৭ কোটি টাকা নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী? ওই সংস্থার সঙ্গে কি চিনের পিউপ্লস লিবারেশন আর্মির কোনও সরাসরি যোগ রয়েছে?”

পাশাপাশি, টিকটকের থেকে ৩০ কোটি, মোবাইল কোম্পানি ‘ওপো’র থেকে ১ কোটি টাকা অনুদান নেওয়া হয়েছে কিনা সেই নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। কংগ্রেস মুখপাত্র আরও বলেন, “পিএম কেয়ারস ফান্ড প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত ফান্ডে পরিণত হয়েছে। সাধারণ মানুষের সাহায্যের জন্য কোনোরকম অডিট করা তো দূর, আরটিআই-এর আওতাতেও আনা হয়নি এটিকে”।

বলা বাহুল্য, করোনা সংকটে সাধারণ মানুষের সাহায্যের জন্য পিএম কেয়ারস ফান্ড তৈরি করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু তৈরি হওয়ার পর থেকেই এই ফান্ডকে ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক, জল্পনা, রহস্য। এই ফান্ডে অনুদান দেওয়া সত্ত্বেও সাধারণ মানুষকেই এর কোনও হিসেব দেখানো হচ্ছে না বলে সুর চড়িয়েছে বিরোধীরা।

ফান্ডের নামে একটি ভেন্টিলেটর মেশিনের ছবি দেখিয়েই বিজেপি হাত ধুয়ে ফেলতে চাইছে বলে অভিযোগ তুলেছে বিরোধী দলগুলি। পিএম কেয়ারস ফান্ডের রহস্য নিয়ে রাহুল গান্ধীর কটাক্ষের মুখেও পড়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here