অযোধ্যার উন্নয়নে মুক্তহস্ত যোগী সরকার, ৫০০ কোটির বাজেট ঘোষণা

0

অরিত্রা দাশগুপ্ত, অযোধ্যা: ৫ আগস্ট আর কিছুক্ষণের মধ্যেই হতে চলেছে ঐতিহাসিক রাম মন্দিরের শিলান্যাস। অযোধ্যায় রাম মন্দিরের শিলান্যাসের জন্য ইতিমধ্যেই যাত্রা শুরু করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই সময় রাম মন্দির কে কেন্দ্র করে অযোধ্যা কে নতুন করে ঢেলে সাজাবার ভাবনাচিন্তা শুরু করলো যোগী আদিত্যনাথ সরকার। উত্তরপ্রদেশ সরকার ইতিমধ্যেই ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে সরযু নদীর তীরে অযোধ্যার সমগ্র অংশটিকে নতুন করে সৌন্দর্যায়নের উদ্দেশ্যে। ভারতের একটি অন্যতম বিশিষ্ট ধর্মীয় স্থান হিসেবে গড়ে তোলার জন্য বিশ্বমানের বিমানবন্দর এবং রেল স্টেশন তৈরি করা হচ্ছে।

এছাড়াও একাধিক রাস্তা এবং হাইওয়ের সৌন্দর্যায়নের দায়িত্ব নিয়েছে যোগী আদিত্যনাথ সরকার। অযোধ্যার ভিতর অসংখ্য ছোট ছোট জায়গা যেখানে রামের স্মৃতি রয়েছে সেগুলি পূর্ণ মর্যাদায় সংরক্ষণ করে সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরার জন্য এখনই উদ্যোগী হয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। এতদিন অব্দি অযোধ্যার যে বিমানবন্দরটি ছিল তা কেবলমাত্র বিশিষ্ট ব্যক্তিদের ব্যবহারের জন্য। সেই বিমানবন্দরটিকে সাধারণের ব্যবহারের জন্য এবং অযোধ্যার একমাত্র বিমানবন্দর হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা শুরু হয়েছে।

সরকারের তরফ থেকে ন্যাশনাল হাইওয়ে গুলির সৌন্দর্যায়নের উদ্দেশ্যে আড়াইশো কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দ করা হয়েছে। ওয়াটার সাপ্লাই প্রকল্পের জন্য ৫৪ কোটি বাজেট বরাদ্দ করেছে যোগী সরকার। সাত কোটি টাকা খরচ করা হবে বাস টার্মিনাল গড়ে তোলার। জন্য এতদিন অবধি ভারতীয় রাজনীতিতে অযোধ্যা শহর হিসেবে ছিল অত্যন্ত নীরব। ইতিহাস বদলের প্রেক্ষাপটে ,রাম মন্দিরের পুনরুত্থানের পর অযোধ্যাই যে আগামী ভারতের ধর্মীয় রাজধানীর আসন পাবে, তার তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকার।