অবস্থা স্থিতিশীল তবে গভীর কোমায় আচ্ছন্ন প্রণব মুখোপাধ্যায়

0

নয়াদিল্লি: প্রয়াত হয়েছেন ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় এমনটাই ভুয়ো খবর শোনা যাচ্ছিল সোশ্যাল মিডিয়া থেকে। এই খবর যে মিথ্যা তা স্পট করে বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন প্রণব পুত্র অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়। তবে বর্তমানে দিল্লির সেনা হাসপাতাল সূত্রের খবর অনুসারে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের অবস্থার কোনও অবনতি হয়নি তিনি স্থিতিশীল রয়েছেন তবে গভীর কোমায় আচ্ছন্ন রয়েছেন।

অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় বাবার মৃত্যুর সমস্ত গুজব উড়িয়ে জানিয়েছেন তাঁর বাবার অবস্থা স্থিতিশীল নতুন করে অবস্থার অবনতি হয়নি বরং চিকিৎসায় তিনি আস্তে আস্তে সাড়া দিচ্ছেন। বৃহস্পতিবার আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল হাসপাতালের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছিল, “প্রণব মুখোপাধ্যায়ের অবস্থা স্থিতিশীল। তবে তিনি অচেতন অবস্থাতেই আছেন। বিভিন্ন প্যারামিটার স্থিতিশীল থাকলেও তিনি গভীরভাবে কোমায় আচ্ছন্ন রয়েছেন। তাঁকে ভেন্টিলেটর সহায়তায় রাখা হয়েছে।” অন্য দিকে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা নিয়ে যে সমস্ত গুজব ছড়াচ্ছিল তা সমস্তটাই ভিত্তিহীন বলেই জানিয়েছেন ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় এবং মেয়ে শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার সকালে অভিজিৎ বাবু ট্যুইট করে লেখেন, “আমার বাবা প্রণব মুখোপাধ্যায় এখনও বেঁচে আছেন এবং তিনি হিমোডায়নামিক্যালি স্থিতিশীল আছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রখ্যাত সাংবাদিক যে পূর্বাভাস ও ভুয়ো খবর ছড়িয়েছেন তাতে এটা স্পষ্ট যে ভারতের সংবাদমাধ্যম ভুয়ো খবরের কারখানা হয়ে গিয়েছে।” কন্যা শর্মিষ্ঠা লিখেন, “আমার বাবার সম্পর্কে যে গুজব ছড়ানো হয়েছে তা মিথ্যে। বিশেষত সংবাদমাধ্যমকে অনুরোধ করছি, আমাকে ফোন করবেন না। কারণ হাসপাতাল থেকে খবর পাওয়ার জন্য আমার ফোনটা রাখা দরকার।”

প্রসঙ্গত, গত রবিবার দিল্লির বাড়িতে বাথরুমে পড়ে গিয়ে মাথায় চোট পান প্রণব মুখোপাধ্যায়। দ্রুত তাঁকে সেনার রিসার্চ অ্যান্ড রেফারাল (আরঅ্যান্ডআর) হাসপাতালে ভর্তি করা হলে নিয়ম মেনেই তাঁর করোনা পরীক্ষা করানো হয় সেখানেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। হাসপাতালের জারি করা মেডিকেল বুলেটিনে বলা হয়েছিল, “প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জিকে ১০ আগস্ট ২০২০-তে গুরুতর অবস্থায় ১২.০৭ মিনিটে দিল্লি সেনানিবাসের সেনাবাহিনীর আরঅ্যান্ডআর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।” বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছিল “হাসপাতালে করা মেডিক্যাল পরীক্ষায় প্রকাশিত হয়েছিল যে তাঁর মস্তিষ্কে একটি বড় জমাট বাঁধা রয়েছে। যার জন্য তিনি জরুরি জীবন রক্ষার অস্ত্রোপচার করান। অস্ত্রোপচারের পরেও তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় তাঁকে ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছে।” তবে গুজব ছড়ালেও ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় অবস্থা আগের থেকে স্থিতিশীল বলেই জানিয়েছেন তাঁর ছেলে।