ভারতের সঙ্গে ভ্যাকসিন আদানপ্রদানের আনুষ্ঠানিক পর্ব সেরে ফেললো রাশিয়া

0

অরিত্রা দাশগুপ্ত, নয়াদিল্লি : গোটা বিশ্বে করোনার দাপট ক্রমেই বেড়ে চলেছে। ভারতে করোনার প্রকোপ অব্যাহত। মঙ্গলবার ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৬০ হাজার মানুষ। এই পরিস্থিতিতে যাবতীয় জল্পনার অবসান ঘটিয়ে রাশিয়ার তৈরি স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিন এর জন্য রাশিয়ার সঙ্গে আনুষ্ঠানিক আদান প্রদানের যোগাযোগ শুরু করলো কেন্দ্রীয় সরকার।

সরকারি সূত্রের খবর, মঙ্গলবার সকালে ভারতের স্বাস্থ্যমন্ত্রকের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেখা করেন রাশিয়ার প্রতিনিধিরা। সেখানেই রাশিয়ার কোভিড স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিন সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য ভারতীয় সরকারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। বেশ কয়েকদিন ধরেই মস্কোর ভারতীয় দূতাবাসের তরফে গামালেয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট ও রাশিয়ান ডিফেন্স মিনিস্ত্রি এর সঙ্গে কথাবার্তা চলছিল। এই ভ্যাকসিন নিয়ে ট্রায়াল ও কার্যকারিতা সম্পর্কিত একাধিক তথ্য চাওয়া হয়েছিল। সূত্রের খবর মঙ্গলবার বৈঠকের পর আইসিএমআর এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রকের কর্তাদের হাতে যাবতীয় ভ্যাকসিন সংক্রান্ত তথ্য তুলে দেওয়া হয়েছে।

কিছুদিন আগেই রাশিয়া দাবি করেছিল যেসব দেশগুলিকে জরুরিভিত্তিতে ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা তারা ভাবছে তাদের অন্যতম দাবিদার ভারত। এমনকি ভারতের সঙ্গে আলোচনার সাপেক্ষে ভারতে রাশিয়ার তৈরি স্পুটনিক ভি উৎপাদনের প্রক্রিয়া শুরু করতে চাইছিল মস্কো। ভারত থেকে সবুজসংকেত মেলায় আদান প্রদানের ব্যাপার অনেক দূর গড়িয়েছে তা স্পষ্ট। করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে গোটা বিশ্বের চাহিদা যখন তুঙ্গে তখনই ১১ আগস্ট মঙ্গলবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানিয়েছিলেন তার দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রক বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন বাজারে আনতে চলেছে। যদিও এই ভ্যাকসিন এর ব্যাপারে হু এখনো ছাড়পত্র দেয়নি।