রাশিয়ার ভ্যাকসিন ভারতে আসা নিয়ে গভীর জল্পনা

0

পায়েল ভড়, নয়াদিল্লি : বিশ্বে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন তৈরি করার দৌড়ে সবার আগে এগিয়ে রাশিয়া। কয়েকদিন আগেই দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানান যে তারা ভ্যাকসিন তৈরি করে ফেলেছেন। তার আরও বলেছেন যে এই ভ্যাকসিন কোরোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে সক্ষম সফলভাবে। ইতিমধ্যে তার মেয়ের উপর নাকি এই ভ্যাকসিন টি প্রয়োগ করা হয়েছে।এই ঘটনার পরপরই শোনা যায় নাকি এই ভ্যাকসিন ভারতে আসতে চলেছে। যদিও প্রথমে এই বিষয়টি কেন্দ্র অস্বীকার করে, তবে বর্তমানে ভ্যাকসিন নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনার বিষয়টি মেনে নিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

বর্তমানে রাশিয়া দাবি করেছে যে ভারতেও এই স্পুটনিক ভ্যাকসিনের পরীক্ষা চালানো হবে। যদিও রাশিয়ার ভ্যাকসিন সংক্রান্ত ঘোষণাকে এখনই মান্যতা দিচ্ছে না বিজ্ঞান মহলের অনেকেই। দেশ-বিদেশের বিজ্ঞানীরা মনে করিয়ে দিচ্ছেন তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের কথা। সাধারণত এই তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালে কয়েক মাস সময় লেগে যায়এবং হাজারের বেশি মানুষের উপর ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়। তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের আগেই ভ্যাকসিন ব্যবহারে তাড়াহুড়ো হিতে বিপরীত হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিজ্ঞানীরা। আর এই তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষাটি ভারতে করার কথা বলছে রাশিয়া। এই বিষয়ে দুই দেশের আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। রাশিয়ায় নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত এই বিষয়ে মস্কোর সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছেন।

প্রসঙ্গত, উল্লেখযোগ্য সম্ভাব্য প্রতিষেধকের তালিকায় রাশিয়ার ‘স্পুটনিক ভি’-কে রাখেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। ট্রাম্প পরিচালিত মার্কিন প্রশাসনও সেই টিকা ‘ছুঁইয়েও দেখতে চায় না’ বলে জানিয়েছিল। তা সত্ত্বেও ওই টিকার চাহিদা হু হু করে বাড়ছে বলে দাবি রাশিয়ার। তাদের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘স্পুটনিক ভি’ হাতে পেতে তৎপর বিশ্বের কমপক্ষে ২০টি দেশ। সেই তালিকায় রয়েছে ভারতের নামও। যদিও এ নিয়ে ভারতের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া এখনও মেলেনি। ভারত ছাড়াও সৌদি আরব, সংযুক্ত আমিরশাহি, ব্রাজিল, ফিলিপিনসে এই তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষা হবে বলে রাশিয়ার তরফে দাবি করা হয়। রুশ সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, যাঁরা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেন তাঁদের উপরে প্রয়োগ করা হবে প্রথম দফার ভ্যাকসিন। স্বাস্থ্যকর্মী, শিক্ষকদের উপর প্রয়োগ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here