ভারত এক অনন্য সংসদীয় গণতন্ত্র যেখানে কোনও প্রশ্ন বা বিতর্কের অনুমতি নেই: পি চিদাম্বরম

0

নয়াদিল্লি: ভারত একটি অনন্য সংসদীয় গণতন্ত্র যেখানে কোনও প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা হয় না এবং কোনও বিতর্ক হয় না। মঙ্গলবার কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরম বলেছেন, লোকসভায় লাদাখ সীমান্তে ভারত-চিন সংঘর্ষ নিয়ে দলটিকে কোনও কথা বলতে দেওয়া হয়নি। তিনি জানিয়েছেন, কংগ্রেসের সদস্যরা লোকসভা থেকে বেরিয়ে এসে পূর্ব লাদাখে চিনের সঙ্গে সীমান্তের অবস্থান নিয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের একটি বক্তব্য অনুসরণ না করে পার্লামেন্ট হাউজ কমপ্লেক্সে মহাত্মা গান্ধী মূর্তির সামনে বিক্ষোভ করেছিল।

কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম ট্যুইট করে লিখেছেন, “আজ ভারত একটি অনন্য সংসদীয় গণতন্ত্র যেখানে কোনও প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা যায় না এবং যেখানে কোনও বিতর্কের অনুমতি দেওয়া হয় না।” একই সঙ্গে পি চিদাম্বরম এই বিবৃতিতে কেন্দ্রে আক্রমণ করে বলেছিলেন, করোনা লকডাউন অবস্থায় কতজন পরিযায়ী শ্রমিক মারা গিয়েছে তার কোনও পরিসংখ্যান কেন্দ্রের কাছে নেই। তিনি ট্যুইটে আরও লিখেছেন, “ভারত আজ একটি অনন্য দেশ যেখানে দীর্ঘ পথযাত্রায় যারা রাস্তায় মারা গিয়েছেন বা বাড়ি ফিরে এসে মারা গিয়েছেন সেই সমস্ত পরিযায়ীদের সম্পর্কে কোনও তথ্য সংরক্ষণ করা হয়নি।”

বলা বাহুল্য যে প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে সরকারকে কোণঠাসা করতে চেয়েছিলেন। তিনি আরও লিখেছিলেন, “ভারতে আজ একটি অনন্য অর্থনীতি রয়েছে যেখানে নগদ বা শস্যের স্থানান্তর জিডিপির ১.৭ শতাংশ হিসাবে পর্যাপ্ত ‘রাজস্বরাজস্ব কর্মপ্রেরণা’ হিসাবে বিবেচিত হয়।” তিনি বলেন, “ভারত আজ একটি অলৌকিক দেশ, যেখানে ‘দ্রুত বর্ধমান অর্থনীতি’ তিন মাসের মধ্যে ‘গভীরতম ডি-গ্রোথ’- এ রূপান্তরিত হয়েছে। সোমবার থেকে শুরু হয়েছে মনসুন অধিবেশে। কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী সোমবার সংসদে বক্তব্য রাখার সময় লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যু নিয়ে মোদী সরকারকে আক্রমণ করেছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here