“এবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে খালি করতে হবে,” ইমরান খানকে সাফ জানালো ভারত

0

নয়াদিল্লি : জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন হলে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বক্তৃতার যথাযথ জবাব দেয় ভারত। শনিবার রাইট টু রিপ্লাইয়ে ইন্ডিয়া মিশনের প্রথম সচিব মিজিতো ভিনিতো বলেন, “এই হলটি নিয়মিত এমন একজন ব্যক্তি(ইমরান খান) সম্পর্কে শুনেছিল যার কাছে নিজের দেখানোর জন্য কিছুই ছিল না, যার কথা বলার মতো কোনও অর্জন ছিল না এবং বিশ্বকে দেওয়ার জন্য কোনও সঠিক পরামর্শ ছিল না।”

ভারতের তরফ থেকে পাকিস্তানকে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে মিজিতো ভিনিতো বলেন যে, কাশ্মীর নিয়ে কেবলমাত্র PoK-র আলোচনা করা বাকি আছে এবং পাকিস্তানকে এখন PoK খালি করতে হবে। তিনি বলেন যে, ইমরান খান নিজেই পাকিস্তানের সংসদে ওসামা বিন লাদেনকে ‘শহীদ’ ঘোষণা করেছিলেন।

শুধু তাই নয়, পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী আমেরিকাতে ২০১৯ সালে স্বীকার করেছিলেন যে, ৩০ থেকে ৪০ হাজার সন্ত্রাসীকে তাদের দেশে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। তারপরে তাদেরকে ভারতে (বিশেষত জম্মু ও কাশ্মীরে) এবং আফগানিস্তানে সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য পাঠানো হয়। মিজিতো ভিনিতো পাকিস্তানের হিন্দু, খ্রিস্টান এবং শিখদের পাশাপাশি অন্যান্য ধর্ম, বর্ণ গোষ্ঠীর লোকদের টার্গেট করা হচ্ছে, জোর করে তাদের ধর্মান্তরিত করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার UNGA-তে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে কাশ্মীরের বিষয়টি উত্থাপন করেছিলেন এবং প্রধানমন্ত্রী মোদীর উপর ব্যক্তিগত আক্রমণও করেছিলেন। ইমরান খান তার বক্তব্য শুরু করার সাথে সাথে হল ছেড়ে চলে যান ভারতীয় প্রতিনিধিরা। প্রধানমন্ত্রী মোদী শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টার দিকে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৫ তম অধিবেশনের সাধারণ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন। প্রধানমন্ত্রী মোদীর ভাষণে সন্ত্রাসের বিষয়গুলি প্রাধান্য পাবে বলে আশা করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর মনোযোগ করোনাভাইরাস মহামারীতেও থাকতে পারে। এছাড়াও সাধারণ পরিষদের মঞ্চ থেকে জাতিসংঘে সংস্কারের বিষয়টি উত্থাপন করতে পারেন।