আবারও উত্তর-পূর্ব ভারতে সক্রিয় জঙ্গিবাদ, জঙ্গি হানায় অরুণাচলে শহীদ অসম রাইফেলসের এক জওয়ান, আহত এক

0

গুয়াহাটি: সংক্ষিপ্ত প্রশান্তির পরে, সন্দেহভাজন জঙ্গিরা আবারও উত্তর-পূর্ব ভারতে সুরক্ষা বাহিনীকে লক্ষ্যবস্তু হিসাবে পরিণত করেছে। মায়ানমারের সীমান্তবর্তী অরুণাচল প্রদেশের চাংলং জেলায় রবিবার সকালে আসাম রাইফেলসের সৈন্যদের আক্রমণ করে জঙ্গিরা। সেই আক্রমনে শহিদ হয়েছেন অসম রাইফেলসের এক জওয়ান আহত হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

রাজধানী ইটানগর থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার দূরে চাংলং জেলার জয়রামপুর থানার অন্তর্গত টেংমো গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছিল। অঞ্চলটি মনমাওর হেটলং গ্রামের কাছাকাছি।চ্যাংলাং জেলার পুলিশ প্রধান সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, “এই ঘটনাটি রবিবার সকালে ঘটেছিল। এক নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ান শহীদ হয়েছিলেন। আরেকজন আহত হয়েছেন। এলাকায় ব্যাপক যৌথ অভিযান চলছে এবং আমরা বিদ্রোহ বিরোধী অভিযান আরও তীব্র করে তুলেছি।” সামরিক গোয়েন্দা সূত্রে জানা গিয়েছে, উলফের পরেশ বড়ুয়ার নেতৃত্বাধীন স্বতন্ত্র গোষ্ঠীর ৩০ থেকে ৩৫ জন জঙ্গি এবং এনএসসিএন (খপালং) গোষ্ঠীর ক্যাডাররা এই হামলার পিছনে ছিল যেহেতু এই দুটি জঙ্গি সংগঠন ওই এলাকায় সক্রিয় ছিল।

পুলিশ জানিয়েছে জঙ্গিরা তখনই হামলা চালিয়েছিল যখন জলের ট্যাঙ্কার নিয়ে নিজেদের রেঞ্জে ফিরছিলেন অসম রাইফেলসের জওয়ানরা। জঙ্গিরা গ্রেনেড নিক্ষেপ করে এবং এলোপাথারি গুলি ছুঁড়তে শুরু করে। জঙ্গিদের গুলিতেই একজন আসাম রাইফেলস জওয়ান হয়ে মারা যান এবং অপর একজন আহত হয়েছেন বলে গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছে। প্রসঙ্গত, গত ১১ জুলাই মায়ানমারের সীমান্তবর্তী অরুণাচল প্রদেশের লংডিং জেলায় সুরক্ষা বাহিনী প্রায় ছয় জনকে গুলি করে হত্যা করেছিল। মৃত জঙ্গিরা নাগা আন্ডারগ্রাউন্ড গ্রুপ এনএসসিএন (আইএম) এর সদস্য বলে জান্নাও হয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here