চলতি বছরে আটারী সীমান্তে বন্ধ Retreat Ceremony

0

চণ্ডীগড়: করোনার কোপ পড়ল প্রজাতন্ত্র দিবসেও। চলতি বছর, প্রজাতন্ত্র দিবসে আটারী সীমান্তে কোনও যৌথ বা সমন্বিত অনুষ্ঠান হবে না। প্রতি বছর পাকিস্তান ও ভারত দুই দেশ মিলে যৌথ প্যারেড করত, যা দর্শকরা উভয় দিক থেকেই দেখতে পেতেন।তবে এই বছর, আটারী সীমান্তে করোনা সংক্রমণের কারণে বিধিনিষেধ থাকার কারণে কোনও ব্যাক্তিকেই প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না।

সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনীর একজন প্রবীণ কর্মকর্তা বলেছেন, “প্রজাতন্ত্র দিবসে আটারী সীমান্তে এই বছর কোনও যৌথ বা সমন্বিত অনুষ্ঠান নেই। কোভিড -১৯ বিধিনিষেধের কারণে কোনও ব্যাক্তিকেই অনুমতি দেওয়া হবে না। ভারত প্রতিবারের সময়সূচী অনুসারে পতাকা উত্তোলন পরিচালনা করবে”। উল্লেখ্য, করোনার থাবা ভারতে বসানোর পর গত ৭ মার্চ থেকে আটারী-ওয়াঘা বর্ডারে সাধারণ মানুষের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের সাথে উত্তেজনাপূর্ণ সম্পর্কের কারণে ভারত বিভিন্ন সময় পাকিস্তানের সাথে সুসম্পর্ক নেই। এমনকি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে পাকিস্তানে মিষ্টি সরবরাহের ব্যবস্থাও বন্ধ করা হয়েছে। সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনীর সূত্রগুলিও দাবি করেছে যে প্রজাতন্ত্র দিবসে কী করা যেতে পারে তা সিদ্ধান্ত নিতে এই সপ্তাহে একটি সভা নির্ধারিত রয়েছে।করোনা পরিস্থিতে সর্বত্র সুরক্ষা বজায় রাখতে প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন বিভিন্ন সচেতনতার পদক্ষেপ থাকছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র সরকার।