অন্য জনের সঙ্গে পালিয়েছে স্ত্রী, ক্ষোভে সিরিয়াল কিলার হয়ে ১৮ জন মহিলাকে খুন করল এক ব্যক্তি

0

হায়দ্রাবাদ: সিনেমাকেও হার মানাবে এই যুবকের কাজ। হায়দ্রাবাদএর ওই যুবক বিয়ে করেছিলেন ২১ বছর বয়সে। কিতু সংসার টেকেনি কারণ স্ত্রী পালিয়েছিলেন অন্য পুরুষের সঙ্গে। সেই থেকেই তরুণীদের প্রতি ঘৃণা জন্মাতে শুরু করে। তখন থেকেই শুরু সিরিয়াল কিলিং এর কার্যকলাপ। এমনটাই পুলিশি জেরার মুখে জানিয়েছে অভিযুক্ত। সব মিলিয়ে পুলিশের খাতায় ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে রয়েছে ২১টি মামলা। খুন করেছেন ১৮ জন মহিলাকে। খুনি হলেন মাইনা রামুলু।

অনেকেই ভাবতে পারেন এমন ঘটনা তো সিনেমা তে হয়। কিন্তু এই ক্ষেত্রে এই ঘটনা ঘটেছে বাস্তবেই। স্ত্রী চলে যাওয়ার পর থেকে মনে ঘৃণা জমা করেছে একের প এক খুন করতে থাকে ৪৫ বছরের ওই ব্যক্তি। ২০০৩ সাল থেকে অপরাধের দুনিয়ায় পা রাখে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি। পেশায় একজন শ্রমিক এই অভিযুক্ত সিরিয়াল কিলার। পুলিশ তাকে খুঁজছিল সম্প্রতি দু’জন মহিলার খুনের অভিযোগে। অবশেষে সাফল্য পেয়েছে সিটি পুলিশ টাস্ক ফোর্স এবং রাচাকোন্ডা কমিশনারেটের পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে তাকে। পুলিশ জানিয়েছে তার বিরুদ্ধে ২১ টির মধ্যে চারটি সম্পত্তি হস্তগত করার অপরাধ, ১৬টি খুনের মামলা ও একবার জেল থেকে পালানোর মামলা রয়েছে।

অভিযুক্তের কীর্তিকলাপের ইতিহাস দেখে চক্ষু চড়কগাছ হয়েছে পুলিশের। পুলিশ আরও জানিয়েছে ৪৫ বছরের ওই ব্যক্তি প্রেমের প্রস্তাব দিয়েই মহিলাদের ফাঁসাতেন। তাঁর পর একসঙ্গে মদ খতেন এবং সময় কাটাতেন। আর সুযোগ পেলেই করতেন খুন এবং তারপরে লুটপাট করে নিত গয়নাগাটি সহ কাছে থাকা দামি জিনিস। এই অভিযুক্তকেই বেশ অনেকদিন থেকেই হন্যে হয়ে পুলিশ খুজছিল। অবশেষে মিলেছে সাফল্য।