দ্রুত টিকাকরণে বিশ্বের মধ্যে পঞ্চম স্থানে ভারত, মাত্র ১১ দিনে পার ২০ লক্ষের গণ্ডি

0

নয়াদিল্লি: সারা দেশে দ্রুত করোনা টিকারণে নজিরগড়ল ভারত। গত ২৬ জানুয়ারি পর্যন্ত ২০ লাখ স্বাস্থ্যকর্মী ও ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারদের সারা দেশে করোনার টিকাকরণ করা হয়েছে। গত ১৬ জানুয়ারি এই প্রক্রিয়া শুরু হয়। তারপর মাত্র ১১ দিনেই এই সাফল্যের নজির গড়ে ভারত। এই মুহূর্তে মোট টিকাকরণ সংখ্যার নিরিখে সারা বিশ্বের মধ্যে ভারত দাঁড়িয়ে পঞ্চম স্থানে।

তালিকায় সবার উপরে রয়েছে আমেরিকা। সেখানে ২৬ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রায় ২ কোটি ৩০ লক্ষ মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইউকে (৭.৬ মিলিয়ন)। তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে রয়েছে যথাক্রমে ইজরায়েল (৪.২ মিলিয়ন) ও সংযুক্ত আরব আমিরশাহী (২.৮ মিলিয়ন)। তারপরেই রয়েছে ভরতের নাম। সরকারি রিপোর্ট অনুযায়ী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভারতের মোট ২৮,৪৭,৬০৮ জন মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে।

টিকাকরণ প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার মাত্র ছ’দিনের মধ্যে সারা দেশে প্রায় দশ লক্ষ মানুষকে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। যা সারা পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত। কারণ টিকাকরণে ‘দশ লক্ষে’ পৌঁছাতে আমেরিকা নিয়েছিল দশদিন। স্পেন নিয়েছিল ১২ দিন। ইজরায়েল ১৪, ইউকে ১৮, ইতালি ১৯, জার্মানি ২০ এবং সংযুক্ত আরব আমিরশাহী ২৭ দিন করে নেয়।

ভারত সরকারের লক্ষ্য, মার্চ ও এপ্রিলের মধ্যেই প্রথম দফার তিন কোটি স্বাস্থ্যকর্মী ও ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারদের ভ্যাকসিন দেওয়া। দ্বিতীয় দফায় পঞ্চাশ বছরের উপরে যাদের বয়স ও যাদের কোমর্বিডিটি রয়েছে তাদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। শোনা যাচ্ছে দ্বিতীয় দফায় খোদ প্রধানমন্ত্রী করোনার ভ্যাকসিন নেবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here