কৃষি আইনের পাশপাশি পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধি ও রেল বেসরকারিকরণ নিয়ে ২৬ মার্চ কৃষক ধর্মঘট

0

নয়াদিল্লী : আগামী দিনে কৃষক আন্দোলনকে আরও মজবুত করার বার্তা আগেই দিয়েছিলেন কৃষক আন্দোলনের নেতারা। ফেব্রুয়ারিতে দেশজুড়ে ‘চাক্কা জ্যাম’ পালনের এক মাসের মধ্যেই ফের দেশব্যাপী ধর্মঘটের ডাক দিল কৃষক সংগঠন। চলতি মাসের ২৬ তারিখ পালিত হবে এই ধর্মঘট। তিনটি বিতর্কিত কৃষি আইন প্রত্যাহারের পাশপাশি এবার পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধি ও রেল বেসরকারিকরণকেও হাতিয়ার করা হচ্ছে। তবে তার আগে ১৫ মার্চ ও ১৯ মার্চ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে। কৃষক আন্দোলনকে শুধু কৃষকদের মধ্যেই সীমিত না রেখে আন্দোলনকে যুব সমাজ ও মধ্যবিত্ত দেশবাসীর মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়াই এই ধর্মঘটের মূল লক্ষ্য।

২৬ মার্চের ধর্মঘটে পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধি ও রেল বেসরকারিকরণকেও হাতিয়ার করার প্রসঙ্গে দিল্লির সিঙ্ঘু সীমানায় অবস্থানকারী কৃষকদের সমাবেশে কৃষক নেতা বুটা সিংহ বুর্জগিল বলেছেন, ‘‘পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি এবং রেল বেসরকারিকরণের বিরোধিতায় আগামী ১৫ মার্চ দেশজুড়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হবে। এই আন্দোলনে সামিল হবেন শ্রমিক সংগঠনগুলির প্রতিনিধিরাও।’’ বুটা আরও বলেন, ‘‘ধর্মঘটের আগে ১৯ মার্চ দেশ জুড়ে ‘মন্ডি বাচাও ক্ষেতি বাচাও’ কর্মসূচি পালন করে হবে।’’

বুটার অভিযোগ, নয়া কৃষি আইন চালু করে কিসান মন্ডিগুলি অস্তিত্ব বিলুপ্ত করে দিতে চাইছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। বুধবার হরিয়ানায় বিজেপি-জেজেপি জোট সরকারের বিরুদ্ধে কংগ্রেস আনা অনাস্থা প্রস্তাবের বিরোধিতা যে বিধায়কেরা করেছিলেন, তাঁদের বয়কটেরও ডাক দিয়েছেন বুটা। উল্লেখ্য তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে চার মাস ধরে দিল্লীর সিঙ্ঘু সীমানায় কৃষকরা আন্দোলনরত। পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান সহ বেশ কিছু রাজ্যের কৃষকরা এই আন্দোলনে সামিল হয়েছেন। তবে ২৬ মার্চের ধর্মঘটকে সর্বাত্মক করতে তৎপর কৃষক সংগঠনগুলি।