তাজমহলের নাম পরিবর্তন নিয়ে বিতর্ক গোটা দেশজুড়ে

0

আগরা: পৃথিবীর সপ্তম আশ্চর্যের অন্যতম স্থাপত্য তাজমহল। শিল্প-ইতিহাস-সৌন্দর্য্যের টানে বিশ্বের পর্যটকদের পছন্দের শীর্ষে আগ্রার তাজমহল। ইতিহাসের গন্ধে ভরপুর এই স্মৃতিসৌধের গায়ে রাজনৈতিক রঙ লেগছে বারংবার। এবার এই তাজমহলের নাম বদলে করা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে গোটা দেশে। খাদ্যদ্রব্য, রেল স্টেশন হোক বা দর্শনীয় স্থান, কোনো কিছুর নাম পরিবর্তনের ক্ষেত্রে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির জুড়ি মেলা ভার। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের বিখ্যাত মোঘলসরাই স্টেশনের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয়েছে দীনদয়াল উপাধ্যায় জংশন।

অন্যদিকে গুজরাটে ড্রাগন ফলের নাম বদলে ‘কমলাম’ রেখেছে বিজয় রূপানির সরকার। সম্প্রতি আগ্রার তাজমহলের নাম বদলে রাম মহল বা শিব মহল করার দাবি তুলেছেন উত্তরপ্রদেশের বালিয়ায় বড়িয়ার বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং। তাঁর দাবি, তাজমহল আগে একটি শিবমন্দির ছিল, পরবর্তীকালে বহিরাগত মুসলিম শাসকদের আক্রমণেই তার রূপ ও নামের পরিবর্তন হয়। তাই বর্তমানে তাজমহলকে আবারও মন্দিরে রূপান্তরিত করার দাবি তুলেছেন তিনি। এদিকে তার এই দাবির পিছনে ফের বিজেপির হিন্দুত্ববাদী রাজনীতির গন্ধ পাচ্ছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

এমনকী এর ফলে দেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ভাবাবেগে আঘাও লাগতে পারে বলে মত অনেকের। যদিও সেসবের তোয়াক্কা বিশেষ করতে দেখা যায়নি সুরেন্দ্র সিংকে। অন্যদিকে তাজমহলের নাম পরিবর্তনের পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীকে মারাঠা যোদ্ধা ছত্রপতি শিবাজির বংশধর বলেও দাবি করেন তিনি। এমনকী তাঁর এও দাবি ইতিহাস বলছে মুসলিম আক্রমণকারীরাই বারংবার ভারতীয় সংস্কৃতি ধ্বংস জন্য উদ্ধত হয়েছিল, তবে যোগী আমলেই ফের “উত্তরপ্রদেশের স্বর্ণযুগে” ফেরত আসবে।