অ-হিন্দুদের প্রবেশ নিষেধ: নির্দেশিকা দেরাদুনের ১৫০টি মন্দিরে, বির্তকে হিন্দু যুব বাহিনী

0

দেরাদুন: ফের বিতর্কে হিন্দু যুব বাহিনী। হিন্দু না হলে প্রবেশ করা যাবে না মন্দিরে, উত্তরাখণ্ডের (Uttarakhand) দেরাদুনের (Dehradun) একটি মন্দিরের সামনে এমনই এক ব্যানার ঘিরে বিতর্কের ঝড় উঠেছে। সংগঠনটির তরফে জানানো হয়েছে, আগামী দিনে উত্তরাখণ্ডের সমস্ত মন্দিরেই এমন ব্যানার লাগাবে তারা। যেখানে স্পষ্ট করে বলা থাকবে সনাতন ধর্মের মানুষ ছাড়া আর কেউ মন্দির প্রাঙ্গণে প্রবেশ করতে পারবে না।

দেহরাদূনের অন্তত ১৫০ মন্দিরে এমনই ‘নিষেধাজ্ঞা’ জারি করে ঝোলানো হল নির্দেশিকা। তবে অবশ্য শেষপর্যন্ত বিতর্কের মুখে পড়ে এই পোস্টার সরানো হয়েছে। এমনকী মামলাও দায়ের হয়েছে হিন্দু যুব বাহিনীর বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, যে ব্যক্তির ফোন নম্বর ওই ব্যানারটিতে ছিল, তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ১৫৩এ ধারায় মামলাও দায়ের করা হয়েছে।  একটি সংবাদসংস্থার খবরে বলা হয়েছে, “এটি হিন্দুদের জন্য পবিত্র স্থান। এখানে অ-হিন্দুদের প্রবেশ নিষেধ।”

এখানেই শেষ নয় পোষ্টায়ের নিচে আবার নাম লেখা ছিল হিন্দু যুব বাহিনীর। সম্প্রতি গাজিয়াবাদের দাসনায় দাসনাদেবী মন্দিরে এক মুসলিম যুবকের জল খাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিতর্ক শুরু হয়েছিল। গোটা ঘটনার ভিডিও করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেন স্থানীয় বাসিন্দারা, এরপরেই ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের। তড়িঘড়ি অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে তারা। আর এই পোস্টারের ঘটনা ফের উস্কে দিল ধর্মের অচলায়তন।