সাক্ষাৎ মৃত্যুর মুখ থেকে বাঁচালেন শিশুর প্রাণ, পুরস্কৃত হওয়ার পরেও জিতলেন মন 

0

মুম্বই: মা অন্ধ সাথে ছোট্ট ছেলে, হাত ছেড়ে কন্ম ভাবে শিশুটি পরে যায় সোজা রেল লাইনে। সাথে সাথেই ছুতে আসছে দ্রুত গতিতে ট্রেন। ছিন্ন ভিন্ন হয়ে যেতে পারত শিশু কিন্তু তা হয়নি। রক্ষা পেয়েছে শিশুটি। নিজের জীবন কে বাজি রেখে ট্রেন লাইনে পরে যাওয়া শিশুকে বাঁচালেন পয়েন্টসম্যান ময়ূর শিলকে থানের ভানগানি স্টেশনের সেই হাড়হিম করা উদ্ধারের ভিডিও নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়। ভিডিওটি পোস্ট করেন রেলমন্ত্রী পিযূষ গোয়েলের। এই মহৎ কাজের জন্য রেলের পখ থেকে ময়ূর শিলকে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হয়। পুরস্কার পাওয়ার পরেও ময়ুর তাঁর মানবতার প্রমান আবার দিলেন।পরস্কার মূল্যের অর্ধেক টাকা তিনি প্রদান করবেন অন্ধ মা ও শিশুটিকে। যাতে সেই অর্থ ব্যয় হয় শিশুটির পড়াশোনা ও অন্যান্য কাজে।

এর পাশাপাশি এই মহৎ কাজের জন্য যারাই ময়ুরের সাথে দেখা করতে আসছেন তাঁদের সকলকেই তিনি অনুরধ করছেন ওই শিশুটির পাশে দাঁড়াতে। স্টেশনের সিসিটিভি ফুটেজে যা দেখা গেছে, ১৭ এপ্রিল শনিবার, মধ্য রেলের থানেতে ভানগানি স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে হেঁটে যাচ্ছেন এক মহিলা ও একটি শিশু। এর পরেই হঠাৎ মায়ের হাত ছেড়ে শিশুটি পড়ে যায় প্ল্যাটফর্মের ধারে রেললাইনে। ঠিক সেই সময় অত্যন্ত দ্রুত গতিতে ছুটে আসতে থাকে ট্রেন।সেই সময় নিজের জীবন কে বাজি রেখে ছুটে আসেন শিশুটির প্রাণ বাঁচাতে রেলের পয়েন্ট্সম্যান ময়ূর শিলকে। শুধু মাত্র একটা সেকেন্ডের ব্যবধান আর ট্রেনের মুখ থেকে শিশুটিকে বাঁচান, ও তারপরেই নিজেও কোনোমতে ওঠেন প্লাটফরমে।

এর পরেই ময়ূরের এই মহৎ কাজের জন্য তাঁকে ছত্রপতি শিবাজী টার্মিনাসে মধ্য রেলের অফিসের পক্ষ থেকে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়। তাঁর সাহসিকতা প্রশংসিত হয় সর্বত্র। টুইটে পিযূষ গোয়েলও তাঁকে অভিবাদন জানান। অপরদিকে বাস্তবের এই নায়ক ময়ূরকে পুরস্কৃত করবে মোটরসাইকেল নির্মাণকারী সংস্থা জাওয়া। তাঁর এই সাহসিকতাকে কুর্নিশ জানাতেই একটি মোটরসাইকেল তাঁকে উপহার দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন এই সংস্থার ডিরেক্টর অনুপম থারেজা টুইটের মাধ্যমে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here