২ মে করা যাবে না বিজয় মিছিল, কড়া নির্দেশিকা জারি করল নির্বাচন কমিশন

0

নয়াদিল্লি: দেশজুড়ে ক্রমশ বাড়ছে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ। বাংলাতেও লাগাতার ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষ নতুন করে করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু সংখ্যা। এই কঠিন পরিস্থিতির সময় বাংলায় চলছে বিধানসভা নির্বাচন। কোভিড বিধি ভঙ্গ করেই চলছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীদের ভোট প্রচার। লাগাতার সংক্রমণ বাড়তে থাকার ফলেও ভোট প্রচারে বড়সড় কোনও নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি কমিশন। তবে এদিন কমিশনের তরফ থেকে একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। আগামী ২ মে রাজ্যে ভোটের ফল ঘোষণার দিন কোনও রকম জনসমাবেশ করা যাবে না।

দিল্লির নির্বাচন কমিশনের তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয় আগামী ২ মে ভোট গণনার দিন বা তার পরে কোনও বিজয় মিছিল করা যাবে না। জয়ী প্রার্থী সার্টিফিকেট নেওয়ার সময় মাত্র দুই জনের বেশি লোককে সঙ্গে নিতে পারবেন না। বলা বাহুল্য, গতকাল মাদ্রাজ হাইকোর্ট বলেছে যে, গোটা দেশে করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গ ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশন দায়বদ্ধ। তাই তাদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করা উচিত। সোমবার মাদ্রাজ হাইকোর্ট নির্বাচন কমিশনকে করোনার মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ চলাকালীন রাজনৈতিক দলগুলিকে সমাবেশ করতে দেওয়ার জন্য তীব্র সমালোচনা করেছে।

এদিনে গত কয়েকদিনের মতো সোমবারও ঊর্ধ্বমুখী বাংলার করোনা গ্রাফ। আর ঊর্ধ্বমুখী এই করোনা গ্রাফে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যাও ৯৫ হাজার ছুঁতে চলেছে প্রায়। সোমবার স্বাস্থ্য দফতর থেকে পাওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার কবলে পড়েছেন ১৫ হাজার ৯৯২ জন। বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন ৯৪ হাজার ৯৪৯ জন। এদিন ১৫ হাজার ৯৯২ জন বেড়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ লক্ষ ৫৯ হাজার ৯৪২ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here