মর্মান্তিক! কাঁদতে কাঁদতে ৩ কিমি হেঁটে শ্মশানে নিয়ে গেলেন করোনায় মৃত স্ত্রীর দেহ

0

হায়দরাবাদ: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে হাহাকার দেশজুড়ে। স্বজন হারানোর কান্না। অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়ছেন শয়ে শয়ে নিরাপরাধ মানুষ। হাসপাতালের বেডে বা বাইরে তিলে তিলে স্তব্ধ হচ্ছে এক একটি প্রাণ। শ্বশানে নীরবতার জো নেই, জ্বলছে একের পর এক আগুন। কোভিডে মৃতের দেহ জমে জমে তো দেশের একাধিক জায়গায় স্তুপও তৈরি হচ্ছে। এমন সংকটজনক পরিস্থিতিতে সম্প্রতি একটি মর্মান্তিক চিত্র সামনে এসেছে। যেটিতে দেখা যাচ্ছে, স্বামী তাঁর স্ত্রীর মৃত দেহ কাঁধে করে নিয়ে যাচ্ছেন শ্মশানে।

জানা গিয়েছে, হায়দরাবাদের একটি রেল স্টেশনের কাছে বাস করতেন মৃত নাগলক্ষ্মী ও তাঁর স্বামী। নুন আনতে পান্তা ফুরনোর পরিবার। কয়েকদিন আগে নাগলক্ষ্মী করোনার উপসর্গ নিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। হত দরিদ্র পরিবার, করোনার চিকিৎসা করাতে চেয়েও মিলল না সুযোগ। এমনকি স্ত্রীর করোনা পরীক্ষাও করাতে পারলেন না তিনি। তারপরই বাড়িতেই মারা যান সেই মহিলা। একেই স্ত্রীকে হারানোর শোকে আচ্ছন্ন স্বামী, তদুপরি পাশে নেই কেউ। বাড়ি থেকে তিন কিলোমিটার দূরে শ্মশানে শেষকৃত্য করতে নিয়ে যেতে হবে স্ত্রীকে। পর্যাপ্ত টাকা না দিতে পারায় মিলল না শববাহী গাড়ি- অ্যাম্বুলেন্স।

শেষে উপায় না পেয়ে স্ত্রীর পোশাক দিয়ে তাঁকে জড়িয়ে কাঁধে তুলে কাঁদতে কাঁদতে ৩ কিমি পথ হেঁটে শ্মশানে গেলেন স্বামী। হায়দরাবাদের এই মর্মান্তিক চিত্র ফের কাঁপিয়ে দিল দেশবাসীকে। প্রসঙ্গত, দেশের সর্বত্র থেকেই উঠে আসছে এমনই একেরপর এক চিত্র। কোথাও মাকে বাইকে করেই শ্মশানে নিয়ে যাচ্ছেন ছেলে, তো কোথাও পর্যাপ্ত অ্যাম্বুলেন্সের অভাবে একই গাড়িতে বোঝাই করা হচ্ছে একাধিক করোনায় মৃতদের দেহ। জনিয়ে দি, শেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশে ফের করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৭৯ হাজার ২৫৭ জন। পাশাপাশি মারন ভাইরাসের ছোবলে এযাবৎ রেকর্ড তৈরি করে মৃত্যুবরন করেছেন ৩৬৪৫ জন। সবমিলিয়ে দেশে বর্তমানে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩০ লক্ষ ৮৪ হাজার ৮১৪।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here