হাসপাতালে যাওয়ার পথে কোভিড রোগীর মৃত্যু, রাস্তার মধ্যেই মৃতদেহ নিয়ে বসে পড়ে পরিবার

0

বেলঘড়িয়া: রাজ্যে ফের করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃতদেহ ঘিরে উত্তেজনা। ২০২০-র সেই ভয়াবহ দৃশ্য যেন আরও ভয়াবহ আকার নিয়ে ফিরে আসছে কলকাতায়। বেলঘড়িয়া ফিডার রোডের রাস্তার পাশে করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃতদেহ ঘিরে এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য।

দমদম ক্যান্টনমেন্ট অঞ্চল থেকে করোনা আক্রান্ত রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিলেন পরিবারের তিনজন সদস্য। বেলঘড়িয়া ফিডার রোড-এর কাছে আসতেই সেই রোগীর মৃত্যু হয়। এরপর মৃতদেহ রাস্তার পাশের একটি ফ্ল্যাটের সামনে রেখে মৃতের পরিবার পরিজনেরা বসে থাকেন। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। বেলঘড়িয়া অঞ্চলের সাধারণ মানুষের অভিযোগ, বিকেল পাঁচটা থেকে পড়ে রয়েছে এই মৃতদেহ।রাজ্যজুড়ে যেভাবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃতের সংখ্যা বেড়ে চলেছে, তাতে একজন করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃতদেহ রাস্তার পাশে ফেলে রাখা কতটা নিরাপদ? সেই প্রশ্নও তোলেন স্থানীয় বাসিন্দারাও। যদিও কামারহাটির পৌর প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়, পৌর প্রশাসক মন্ডল-এর প্রধান গোপাল সাহা মহাশয় সমস্ত বিষয়টি তদারক করছেন।

প্রসঙ্গত, শহরের কোথাও কোভিড মৃতদেহ বাড়ির সামনে রেখে দিয়ে পালাচ্ছে অ্যাম্বুলেন্স। কোথাও বা প্রবীন নাগরিকের মৃত্যুর পর মৃতদেহ ঘিরে এলাকাবাসীর মধ্যে ছড়াচ্ছে আতঙ্ক। এদিকে যারা কোভিডে আক্রান্ত হয়েও বেঁচে রয়েছেন এবং বয়েস অনেকটাই বেশি , তাঁদেরকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় চিকিৎসক থেকে পরিবার। কারণ একাকিত্ব-হতাশা-মানসিক নানা সমস্যায় পড়ে ইতিমধ্যেই বেলেঘাটা আইডির বাথরুম থেকে এক বৃদ্ধের ঝুলন্ত দেহ পাওয়ার পর অনেকটাই আতঙ্কে কলকাতাবাসী। করোনা আতঙ্কের পাশাপাশি মানসিক অবসাদও ভয়ঙ্কর রূপ নিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here