আবারও প্রমাণিত বর্বর উত্তরপ্রদেশ সরকার, মুমুর্ষ রোগীকে অক্সিজেন দেওয়ার বদলে গাছ তলায় অপেক্ষার পরামর্শ

0

লখনউ: যোগী আদিত্যনাথ বলেছিলেন সোনার বাংলা গড়তে হলে বাংলায় চাই বিজেপিকে। তাঁর এই উক্তি যে সত্যি হাস্যকর তার প্রমাণ আবারও দিল তার পরিচালিত রাজ্য। বর্বরতার চিত্র যোগী রাজ্যে নতুন নয়। সেই প্রমাণই আবার দিলো উত্তরপ্রদেশ।সারা দেশ জুড়ে আজ হাহাকার নেই অক্সিজেন। মুমূর্ষ রোগীকে নিয়ে মানুষ ছুটে বেড়াচ্ছেন। শুধু উত্তরপ্রদেশে নয় সারা ভারত জুড়ে।কি অপূর্ব দৃশ্য একটা অক্সিজেন সিলিন্ডারের জন্য আজ মানুষ কেঁদে কেঁদে বেড়াচ্ছেন চোখের সামনে শেষ হতে দেখছেন নিজের পরিজনদের।

এই দুর্বিষহ পরিস্থিতির সমাধানের জন্য অদ্ভুত পরামর্শ দিলেন যোগী রাজ্য উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজের পুলিস। বিধায়ক হর্ষবর্ধন বাজপেয়ীর অক্সিজেনের জন্য প্লান্টের ব্যবস্থা করেছিলেন। তার এই প্ল্যান্টের সামনে সাধারণ মানুষ একটু অক্সিজেনের আশায় ভিড় করেছিলেন। প্ল্যান্টের কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয় প্রশাসনের তৈরি করা নিয়মেই অক্সিজেন প্রথমে যাবে হাসপাতালে। এরপরেই প্ল্যান্টের সামনে অপেক্ষারত মানুষ চিন্তায় পরে যায়। তারা জানাচ্ছেন, ‘আমরা যেখানেই যাই না কেন, তারা আমাদের ফিরিয়ে দিচ্ছে। হাসপাতাল এবং অক্সিজেন প্ল্যান্টগুলি বাইরে বোর্ড বসিয়েছে দিয়েছে’।

এদের মধেই এক যুবক প্ল্যান্টে প্রবেশ করার অনুমতি চাইলে ,তাকে বেড় করে দেওয়া হয় সেখান থেকে।কর্তব্যরত পুলিশকে যুবকটি কাতর অনুরোধ করে বলেন ‘কোথায় যাব তাহলে?বাবাকে বাঁচাতে পারব না অক্সিজেন না পেলে ‘। কাঁদতে কাঁদতে যুবক টি মিনতি করে পুলিশ কে। সেই সময় পুলিশ তাঁকে পরামর্শ দেন বাবাকে নিয়ে অশ্বত্থ গাছের তলায় নিয়ে যেতে। এই ঘটনা আবারও প্রমাণ করে কতখানি অমানবিক উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন সহ সরকার।মানুষের কাতর আর্জি ,স্বজন হারানোর যন্ত্রণা কার্যত তারা ভৎসনার দিয়ে উড়িয়ে দিচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here