প্রথা ভেঙে মেয়ের সম্প্রদান করলেন শিক্ষিকা মা

0

শ্রেয়া ব্যানার্জী, জলপাইগুড়ি: সরস্বতী পুজোয় মহিলা পুরোহিতকে দিয়ে পুজোর পরে এবার মাকে দিয়ে কন্যা সম্প্রদান করে আবারও একবার প্রমাণিত হল সমাজে মেয়েদের অধিকার কোনও অংশেই কম নয়। সমাজের বেশ কিছু সুপ্রাচীন ধারনা যেমন, পুরুষ পুরোহিত অথবা কেবলমাত্র কোনও পুরুষের দ্বারাই কন্যা সম্প্রদান সম্ভব ইত্যাদিকে পিছনে ফেলে দিয়ে সমাজের এই এগিয়ে যাওয়া মুহূর্তই নির্দ্ধিয়ায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নিদর্শন।

মায়ের হাতে মেয়ের এই কন্যা সম্প্রদানের ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ি এর তিস্তা পর্যটন আবাসে। আর এই সমাজের বাঁধা ধরা নিয়ম ভেঙ্গে এগিয়ে আসা মায়ের নাম সুমনা ঘোষদস্তিদার। গত ১৭ জানুয়ারি ঘটনাটি ঘটেছে। এই ব্যাপারে সুমনা দেবীকে জিজ্ঞেসা করায় তিনি বলেন যে, এই ঘটনাটি কে তিনি কোনও বৈপ্লবিক কিছু মনে করেন না। গর্ভে ধারণ করা মেয়ের প্রতি তার ভালোবাসা প্রকাশ করেছেন মাত্র।

মেয়েকে সম্প্রদান করবে মা এই নিয়ে সমাজ যে অনেক কিছু বলবে তা খুব ভাল করেই বুঝতে পেরেছিল সরকার পরিবার। তবু তারা পিছিয়ে আসেননি। সুমনা দেবীর প্রচলিত এই ধারনাকে ঘুচিয়ে এগিয়ে আসার লড়াইয়ে তিনি তার স্বামী জয়ন্ত সরকারকে পাশে পেয়েছিলেন সবসময়। যা সুমনা দেবীর কাছে অত্যন্ত বড় একটি ব্যাপার।

সমাজের প্রচলিত বহু ধারনাকে ভেঙ্গে মহিলাদের এগিয়ে আসার এই রূপ ঘটনা নতুন কিছু নয় এই মুহূর্তে। বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ভাবে নারী জাতি তাদের দক্ষতা প্রমাণ করেছেন এর আগেও এবং প্রতিদিন করে চলেছেন। যা প্রমাণ করে দেয় পুরুষ নারী এর বিভেদ আসলেই কোনও বড় ব্যাপার নয়।