বিশ্বের এই ১৪টি দেশে এখনও পড়েনি করোনার মরণকামড়

0

নয়াদিল্লি : গোটা বিশ্ব আজ করোনার মহামারিতে ব্যতিব্যস্ত। প্রতিনিয়ত আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এই পরিস্থিতিতে প্রশ্ন এসেই যায়, পৃথিবীতে কি এমন কোনও দেশ আছে যা এখনও করোনার এই করাল গ্রাসের হাত থেকে বেঁচে রয়েছে? আমরা জানি, পৃথিবীতে মোট ১৯৩টি দেশ রয়েছে। কিন্তু যদি দ্বীপপুঞ্জ ও অসম্পৃক্ত দেশগুলিকে যোগ করলে সংখ্যাটা দাঁড়ায় ২৪৯। আর এই দেশগুলির মধ্যে মোট ১৪টি দেশে এখনও পর্যন্ত করোনার প্রভাব এতটুকুও পড়েনি। সেই দেশগুলি নিচে দেওয়া রইল,

১. নাউরু – নাউরু অর্থাৎ নাউরু প্রজাতন্ত্র দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের একটি দ্বীপরাষ্ট্র। ২০০৭ সালের জনগণনা অনুযায়ী এই রাষ্ট্রে মোট ১৩ হাজার ৫২৮ জন মানুষ থাকেন। এই দেশের রাজধানী ইয়ারেন।

২. তুভালু – দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের আরও একটি দ্বীপ রাষ্ট্র এই তুভালু। এর রাজধানী হল ফুনাফুটি। ২০১৭ এর জনগণনা অনুযায়ী এই দেশের মোট জনসংখ্যা ১১ হাজার ১৯২।

৩. পালাউ – ৫০০টি দ্বীপ নিয়ে এই পালাউ দ্বীপপুঞ্জ পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরের মাইক্রোনেশিয়া অঞ্চলে অবস্থিত। এর রাজধানী হল নার্গুলমাড। ২০১৭ সালের সেনসাস অনুযায়ী, এই দ্বীপপুঞ্জের জনসংখ্যা হল ২১ হাজার ৭২৯।

৪. সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস – ওয়েস্ট ইন্ডিজ দ্বীপপুঞ্জের অন্তর্গত এই দ্বি-দ্বীপরাষ্ট্রটি আটলান্টিক মহাসাগর ও ক্যারিবিয়ান সাগরের মাঝেই অবস্থিত।

৫. মার্শাল দ্বীপপুঞ্জ – প্রশান্ত মহাসাগরের মাঝে মাইক্রোনেশিয়ান অঞ্চলে অবস্থিত প্রজাতন্ত্রী মার্শাল দ্বীপপুঞ্জ। এর জনসংখ্যা ৫৩ হাজার ১২৭।

৬. টঙ্গা – দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের ১৭০টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত টঙ্গা দ্বীপপুঞ্জ। এই রাষ্ট্রের জনসংখ্যা ১ লক্ষ ৮ হাজার। এর রাজধানী নুকুয়ালোফা।

৭. মাইক্রোনেশিয়া – ওশিয়ানিয়া মহাদেশের একটি অংশ হল মাইক্রোনেশিয়া যেটি প্রশান্ত মহাসাগরের পশ্চিম ভাগে অবস্থিত।

৮. কিরিবাটি – প্রশান্ত মহাসাগরের মধ্যভাগে এই কিরিবাটি দ্বীপরাষ্ট্রটি অবস্থিত। মোট ১ লক্ষ ১৯ হাজার ৪৪৯ জন মানুষ এখানে বাস করেন।

৯. সামোয়া – ১৯৬২ সালে নিউজিল্যান্ডের কাছ থেকে স্বাধীনতা পাওয়া এই সামোয়া দ্বীপরাষ্ট্রটি প্রশান্ত মহাসাগরে অবস্থিত।

১০. সাও টোম অ্যান্ড প্রিন্সিপে – আফ্রিকার একটি দ্বীপরাষ্ট্র এই দেশটি বিষুবরেখার কাছে অবস্থিত। এই দেশের জনসংখ্যা ২ লক্ষ ৪ হাজার।

১১. ভানুয়াটু – প্রায় ৮০টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত এই ভানুয়াটু দ্বীপরাষ্ট্রটি প্রায় ১৩০০ কিলোমিটার ছড়িয়ে রয়েছে। এই দেশের রাজধানী হার্বারসাইড পোর্ট ভেইল। এর জনসংখ্যা ২ লক্ষ ৭৬ হাজার।

১২. সলোমন দ্বীপপুঞ্জ – দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে শতখানেকের বেশি দ্বীপ নিয়ে গঠিত এই দ্বীপপুঞ্জের জনসংখ্যা ৬ লক্ষ ১১ হাজার।

১৩. কোমোরোস – আফ্রিকার পূর্ব উপকূলের দ্বীপপুঞ্জ এই কোমোরোস। এর রাজধানী হল মোরোনি। এর জনসংখ্যা ৮ লক্ষ ১৪ হাজার।

১৪. লিসোটো – দক্ষিণ আফ্রিকার কাছেই অবস্থিত এই দেশটির রাজধানী মাসেরু।

সুতরাং বোঝাই গেল, প্রায় প্রতিটি রাষ্ট্র যারা করোনায় আক্রান্ত হয়নি তারা অতি ক্ষুদ্র দ্বীপরাষ্ট্র যেখানে মানুষের আনাগোনা খুবই কম। আর সম্ভবত সেখানে বিদেশীদের যাত্রাও কম। তাই হয়ত এই দেশগুলিতে এখনও করোনার গ্রাস পড়েনি।