Fact-check: সমুদ্র সৈকতে মোদী ‘শ্যুটিংয়ে’র ভাইরাল ছবি সত্য নয়

রানা দাস, কলকাতা: শনিবার সমুদ্র সৈকতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্লস্টিক পরিস্কার করার ছবি ঘণ্টার মধ্যেই ভাইরাল হয়৷ তারপরেই বিরোধীরা তো বটেই, নিন্দুকেরা স্যোসাল মিডিয়ায় উঠে পড়ে নেমে পড়ে প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনায়৷ নানা মুনির নানা মত শুরু হয়৷

রাত না কাটতেই স্যোসাল মিডিয়া উঠে আসে মোদীর এই সি-বিচ পরিস্কার করার ছবির পালটা ছবি দিতে৷ তাতেই দেখা যায়, চারটে ছবি পর পর সাজিয়ে প্রমাণ করার চেষ্টা হয়, মোদীর সি-বিচ পরিস্কার করার বিষয়টি রীতিমতো চিত্রনাট্য তৈরি করে শ্যুটিং করা হয়েছে৷ তাতে দেখা যাচ্ছে, প্রথমে নিরাপত্তারক্ষীরা মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে সি-বিচ পরীক্ষা করে দেখছে৷ তার পরেই ছবিতে রয়েছে সি-বিচে প্লস্টিকের জঞ্জাল ফেলা হচ্ছে৷ তার পরেই রয়েছে শ্যুটিং ইউনিটের ছবি৷ সব শেষে প্রধানমন্ত্রী সি-বিচে প্লস্টিকের কুড়োতে শুরু করেছেন৷

রবিবার সকাল থেকেই এই চারটি ছবির একটা কোলাজ স্যোসাল মিডিয়ায় ঘুরতে শুরু করে৷ রীতিমতো মোদীর ছবির মতোও এটাও ভাইরাল হতে থাকে৷ এই ছবির সত্যতা যাচাই করতেই রবিরাব সকাল থেকে kolkata times24 ময়দানে নেমে পড়ে৷ তাতেই উঠে আসে আসল রহস্য৷ দেখা যাচ্ছে, এই ছবির কোলাজটি প্রথমে স্যোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন কংগ্রেস নেতা তথা কারাগার বন্দি প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরমের ছেলে কীর্তি চিদাম্বরম৷ তিনি ট্যুইট করে এই ছবিটি শেয়ার করেন ১২ অক্টোবর রাত ৯টা ২৬ মিনিটে৷ নিচে রইল সেই ট্যুইট৷

কীর্তির শেয়ার করা ছবিতে নিরাপত্তা রক্ষীদের সি-বিচ পরীক্ষা করার যে ছবিটা দেখা যাচ্ছে, তা মোদীর প্ল্যাস্টিক কুড়তো যাওয়ার আগের ছবি নয়৷ ছবিটা প্রায় পাঁচ মাস আগের৷ ২০১৯ সালের ২৩ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী কেরলে গিয়েছিলেন নির্বাচনী সভা করতে৷ সেই লক্ষ্যেই কোজিকোর সি-বিচে পরীক্ষা করছিলেন নিরাপত্তা রক্ষীরা৷ সেই ছবিটিকেই শনিবারের বলে চালানো হয়েছে৷ নিচে সেই ছবিটা দেওয়া হল৷ এই সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদনও প্রকাশ করেছিল দ্যা হিন্দু সংবাদপত্র৷ হিন্দুর সেই সংবাদে ব্যবহার করা ছবিটিও দেওয়া হল নিচে৷


নতুন করে ভাইরাল হওয়া মোদীর ‘শ্যুটিংয়ে ছবিটিও জাল৷ এই ছবিটি শনিবার মোদীর প্ল্যাস্টিক কুড়তো যাওয়ার আগের ছবি নয়৷ এই সি-বিচটি স্কটল্যান্ডের ওয়েস্ট স্যান্ড বিচের ছবি৷ সেখানকার একটি জনপ্রিয় শ্যুটিং স্পট৷ নিচে সেই ছবিটিও দেওয়া হল৷ এই ছবিটও প্রকাশিত হয়েছি tayscreen.com ওয়েব সাইটে৷

এই সমস্ত জাল ছবি দিয়েই প্রমাণ করা হচ্ছে, শনিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রীতিমতো চিত্রনাট্য রচনা করে সি-বিচে প্ল্যাস্টিক কুড়োতে গিয়েছিলেন বলে ছবির কোলাজ ভাইরাই হয়েছে, তা সত্য নয়৷