শুক্রবার দুপুরেই ঘোষণা হবে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা! থাকবে একাধিক চমক

0

কলকাতা: পূর্ব ঘোষণা মতোই আজ পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করবে শাসক দল। রয়েছে একধিক চমক। প্রার্থী তালিকায় থাকবে নতুন – পুরানোর ভারসাম্য। যেমন তৃণমূলের হেভিওয়েটারা টিকিট পাবেন। তেমনি তালিকায় দেখা যাবে নতুন নামও। এমনকি সম্প্রতি তৃণমূলে যোগ দেওয়া অনেক তারকারাও পাবেন টিকিট। পুরোনো তৃণমূল প্রার্থীরা তাদের নিজস্ব কেন্দ্রেই দাঁড়াবে। তৃণমূলের সুত্রে খবর বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হবে যুবশক্তি ও মহিলা প্রার্থীদের। তাই শুক্রবার সকাল থেকেই উত্তেজনা তুঙ্গে। রাজনৈতিক মহলেও চলছে অনেক জল্পনা কল্পনা। আজ দুপুরে মমতার কালীঘাটের অফিসে বৈঠকে বসছে দলের ১২ সদস্যের নির্বাচন কমিটি। আলোচনা সেরে সম্ভবত দুপুরেই ২৯৪ কেন্দ্রের জন‌্য প্রার্থীর নাম ঘোষণা।

উল্লেখ্য গত বুধবারই ঘাসফুল শিবির জানিয়ে দেয় যে ধাপে ধাপে নয়, ২৯৪ আসনের পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হবে। এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে ভোটের আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দলবদলু ও বিরোধী শিবিরকে কৌশলী বার্তা দিলেন বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কারণ অনেকের ধারণা ছিল যে শুভেন্দু – রাজীব সহ বেশ কিছু নেতাকে হারিয়ে ভোটের মুখে ধরাশায়ী হয়ে পড়েছে তৃণমূল। প্রার্থী দিতেও হিমশিম খাবে শাসক দল। কিন্তু এই সব ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে একসঙ্গে সবকটি আসনের পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা আজ ঘোষণা করবে শাসক দল। ঘাসফুল শিবিরের স্পষ্ট বার্তা, দলত্যাগীদের জন্য খর্ব হয়নি তৃণমূলের শক্তি। শুভেন্দু – রাজীব ছাড়াও বহু এমন প্রার্থী তৃণমূলের আছে যারা ভোটে লড়ার ক্ষমতা রাখে।

উল্লেখ্য, তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা নিয়ে কৌতুহল প্রবল রাজনৈতিক মহলে। সেই উঠে আসছে অনেক চেনা নাম। নতুনদের মধ্যে এবার কলকাতায় উল্লেখযোগ্য নাম হচ্ছে সদ্য প্রাক্তন ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ, এবং মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমারের। রয়েছেন সদ্য অবসর নেওয়া আমলা হুমায়ুন কবীর। তাৎপর্যপূর্ণভাবে উঠে এসেছে স‌দ‌্য অবসর নেওয়া মুখ‌্যসচিব রাজীব সিনহার নাম। তেমনি আবার বহু টলি তারকাকে টিকিট দেওয়া হতে পারে। সম্প্রতি তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন রাজ, সায়নি, অন্যান্য, সায়ন্তিকারা। এছাড়া এবারের প্রার্থী তালিকায় তারুণ্যের প্রাবল্য থাকার সম্ভাবনাও রয়েছে। ছাত্রনেতা তৃণাঙ্কুর ভট্টাচার্য, দেবাংশু ভট্টাচার্য, জয়া ভদ্রের মতো ছাত্রনেতৃত্ব একুশের বিধানসভা ভোটে লড়তে পারেন শাসকদলের হয়ে। দিকে বিজেপিও তাদের প্রার্থী তালিকা যে কোনো সময় ঘোষণা করে দিতে পারে। তৃণমূল ছেড়ে আসা নেতাদের তাদের নিজেস্ব বিধানসভাতেই প্রার্থী করছে রাজ্য বিজেপি।