২৯১ আসনে প্রার্থী ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, নন্দীগ্রামে মমতাই, একনজরে প্রার্থী তালিকা

0

একুশের হাই ভোল্টেজ নির্বাচনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার কালীঘাটের অফিসে সাংবাদিক সম্মেলন করে তিনি এই ঘোষণা করেন। প্রার্থী তালিকা ঘোষণার সময় উপস্থিত ছিলেন সঙ্গে রয়েছেন সুব্রত বক্সী, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, সৌগত রায়। আসন্ন ভোটে ২৯৪ টি আসনের মধ্যে ২৯১ আসনে প্রার্থী দিয়েছে তৃণমূল। দার্জিলিং, কার্সিয়াঙ, কলিম্পঙ এই তিনটি আসন ছাড়া হয়েছে পাহাড়ের গোর্খা জনমুক্তি মোর্চাকে। প্রত্যাশিত ভাবেই একাধিক চমক ছিল প্রার্থী তালিকায়। তবে কথা দিয়ে কথা রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচনে তিন নন্দীগ্রাম থেকেই লড়ছেন। .যে ভবানীপুরে দাঁড়াতেন মমতা, ’২১-এর ভোটে সেখানে প্রার্থী হচ্ছেন রাজ্যের মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। যাঁদের আসন দেওয়া যাচ্ছে না, বিধান পরিষদে স্থান দেওয়া হবে। বিধান পরিষদে অমিত মিত্র, পূর্ণেন্দু বসু: মমতা।

এক নজরে প্রার্থী তালিকা

সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় দাঁড়াবেন বাঁকুড়া থেকে, কাঞ্চন মল্লিক উত্তরপাড়া থেকে, মনোজ তিওয়ারি শিবপুরে, রাজ চক্রবর্তী ব্যারাকপুরে। অদিতি মুন্সি রাজারহাটে। বিবেক গুপ্ত প্রার্থী হচ্ছেন জোড়াসাঁকোয়। সিঙ্গুরে রবীন্দ্রনাথের পরিবর্তে প্রার্থী হচ্ছেন বেচারাম মান্না। রত্না চট্টোপাধ্যায় প্রার্থী হচ্ছেন বেহালা পূর্বে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় দাঁড়াবেন বেহালা পশ্চিমে। কৌশানী মুখোপাধ্যায় দাঁড়াচ্ছেন কৃষ্ণনগর উত্তর থেকে। সোহম চক্রবর্তী দাঁড়াচ্ছেন চণ্ডীপুর থেকে। আসানসোল দক্ষিণ থেকে দাঁড়াচ্ছেন সায়নী ঘোষ। ইসলামপুরে করিম চৌধুরী, হেমতাবাদে সত্যজিৎ বর্মণ, কালিয়াগঞ্জ তপনদেব সিনহা, ইটাহারে মোশারফ হোসেন, গাজলে বাসন্তী বর্মণ, চাঁচলে নীহাররঞ্জন ঘোষ, ধূপগুড়িতে মিতালি রায়, ফরাক্কা মনিরুল ইসলাম, জঙ্গিপুর জাকির হুসেন, কামারহাটিতে মদন মিত্র। ডোমজুড়ে কল্যাণ ঘোষ, শ্রীরামপুরে সুদীপ্ত রায়, হুময়ুন কবীর ডেবরায়, ঝাড়গ্রামে বীরবাহা, শিলিগুড়িতে ওমপ্রকাশ মিশ্র, চাকুলিয়ায় আরবিন আজাদ, রায়গঞ্জে কানইয়ালাল আগরওয়াল, দমদমে ব্রাত্য বসু, বালুরঘাটে শেখর দাসগুপ্ত, রতুয়ায় সমর মুখোপাধ্যায়, মোতাবড়িতে সাবিনা ইয়াসমিন, সাগরগিঘিতে সুব্রত সাহা, ভগবানগোলায় ইদ্রিশ আলি, কান্দিতে অপূর্ব সরকার। রেজিনগরে রবিউল আলম চৌধুরী, জলঙ্গিতে আবদুল রেজ্জাক, নবদ্বীপে পুণ্ডরীকাক্ষ সাহা, হরিণঘাটায় নীলিমা নাগ, স্বরূপনগরে হিনা মণ্ডল, নৈহাটি পার্থ ভৌমিক, চৌরঙ্গী নয়না বন্দ্যোপাধ্যায়, শ্যামপুকুর শশী পাঁজা, হাওড়া মধ্য অরূপ রায়। ভাঙড় মহম্মদ রেজাউল করিম, চন্দননগর ইন্দ্রনীল সেন। রাসবিহারিতে দেবাশিস কুমার, হরিপালে করবী মান্না, তারকেশ্বরে রমেন্দু সিংহ রায়, আরামবাগে সুজাতা মণ্ডল খাঁ, গাইঘাটায় নরোত্তম বিশ্বাস, হাবড়ায় জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, ভাটপাড়ায় জিতন্দ্র সাউ, বারসতে চিরঞ্জিত চক্রবর্তী, পাথরপ্রতিমায় সনৎ জানা, কাকদ্বীপে মন্টুরাম পাখিরা। সবংয়ে মানস ভুঁইয়া, কেশপুরে শিউলা সাহা, পারায় উমাপদ বাউড়ি, ঝাড়গ্রামে বীরবাহা হাঁসদা, রানিবাঁধে জোৎস্না মাণ্ডি, মন্তেশ্বরে সিদিকউল্লা, মেমারিতে মধুসূদন ভট্টাচার্য, ভাতার মনগোবিন্দ অধিকারী, পাণ্ডবেশ্বর নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী। বোলপুরে চন্দ্রনাথ সিনহা, ইংরেজবাজারে কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরী, পটাশপুরে উত্তমকুমার রায়, খড়দহে কাজল সিনহা, হিঙ্গলগঞ্জে দেবেশ মণ্ডল, মগরাহাট পশ্চিমে গিয়াসউদ্দিন মোল্লা।