“সাধারণ মানুষের জন্য ওনার কোনও ত্যাগ নেই, বিশ্বাসঘাতকতা ওনার অভ্যাস” তৃণমূল নেতাদের কটাক্ষের শিকার মহাগুরু

0

কলকাতা: রবিবারে বিজেপির শক্তি প্রদর্শন করার জন্য কলকাতার বিগ্রেডের ময়াদানে সভা করেছেন। বহু চর্চা , জল্পনার পর সেই সভাতেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন প্রাক্তন তৃণমূল নেতা তথা জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। দলবদল বঙ্গ রাজনীতিতে এখন নতুন কিছু নয়। গত বছরের শেষ থেকেই চলছে দল বসলের হিড়িক। তবে মিঠুন চক্রবর্তীর বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিয়ে এবার তৃণমূল নেতাদের কটাক্ষের শিকার হলেন মহাগুরু।

মোদীর সভাতে যোগ দেওয়া নিয়ে মিঠুন চক্রবর্তীকে একযোগে আক্রমণ করেছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়, ফিরহাদ হাকিম ও কুণাল ঘোষ। বলা ভালো যে এই অভিনেতা বিজেপি যোগ দিয়ে বঙ্গের সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলি সঙ্গে যুক্ত হয়ে তাঁর বৃত্ত পূর্ণ করেছেন। বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিয়ে সৌগত রায় বলেছেন, “উনি একাধিক বার শিবির বদল করেছেন। সাধারণ মানুষের জন্য ওনার কোনও ত্যাগ নেই। মিঠুনকে ভরসা করা যায় না। বিশ্বাসঘাতকতা ওনার অভ্যাস।” কুণাল ঘোষ কটাক্ষ করে বলেছেন, ” বড় মাপের অভিনেতারা সবসময় বড় হাউস খোঁজেন। ওনার ব্যপারটাও সেই একই রকম। ফিরহাদ হাকিম বলেছেন, “উনি নকশাল ছিলেন, মিঠুনদা কে এক সময় সুভাসবাবুর সঙ্গেও দেখেছি। পরে তৃণমূলে এসেছিলেন। ওনার অনেক রূপ। আরও অনেক রূপ দেখব।”

বলা ভালো যে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই তৃণমূল দলকে অনান্য নেতাদের মতোই খারপ হয়ে যাওয়া দল বলে আক্রমণ করেছেন। খবর রয়েছে তিনি নাকি ১২ মার্চ থেকে বিজেপির হয়ে প্রচারে নামবেন। রাজনৈতিক মহলের অন্দরে জল্পনা রয়েছে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রীর পদপ্রার্থী হিসাবে মিঠুন চক্রবর্তীকে সামে রেখেই ২১-এর নির্বাচনী যুদ্ধে লড়াবে বিজেপি। ঠিক এই কারনেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন অভিনেতা। তবে এই বিষয়ে বিজেপির তফফ থেকে কোনও কিছুই জানানো হয়নি।